Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:৫৭ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর
শিক্ষার্থী সিদ্দিকুরকে আহতের পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ফাইল ফটো। ইন্টারনেট

শিক্ষার্থী সিদ্দিকুরকে প্রয়োজনে বিদেশে পাঠানো হবে: সেতুমন্ত্রী

তিতুমীর কলেজের ছাত্র সিদ্দিকুর রহমানের চোখের চিকিৎসায় প্রয়োজন হলে বিদেশে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার দুপুরে জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে সিদ্দিকুরকে দেখেতে গিয়ে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে সিদ্দিকুরের চিকিৎসার ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। সিদ্দিকুরের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নিতেই প্রধানমন্ত্রী তাকে পাঠিয়েছেন। সিদ্দিকুরকে সর্বোচ্চ চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। প্রয়োজনে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বিদেশে পাঠানো হবে।

পুলিশের টিয়ার শেলের আঘাতে সিদ্দিকুরের চোখ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার বিষয়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা অভিযোগ। বিষয়টি তদন্তে পুলিশের পক্ষ থেকে তিন সদস্যের কমিটি করা হয়েছে। তিন কার্যদিবসের মধ্যে ওই প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনের সড়কে বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীদের লক্ষ্য করে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। এতে সিদ্দিকুর রহমান গুরুতর আহত হন। কাঁদানে গ্যাসের শেলের আঘাতে তার চোখ ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত হওয়া রাজধানীর সাত সরকারি কলেজ; ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা কলেজ, তিতুমীর কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ ও সরকারি বাঙলা কলেজের শিক্ষার্থীরা রুটিনসহ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণার দাবিতে এ বিক্ষোভ করে।

একপর্যায়ে শিক্ষার্থীদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করা হয় এবং একপর্যায়ে কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ।

সিদ্দিকুর ও তার সহপাঠিরা জানান, পুলিশের ছোড়া কাঁদানে গ্যাসের শেলের আঘাতে আহত হন তিনি। এরপর তাকে জাতীয় চক্ষুবিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সিদ্দিকুর রহমানের বাড়ি ময়মনসিংহের তারাকান্দার ঢাকেরকান্দা গ্রামে।

এদিকে এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে শাহবাগ থানায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। মামলায় আসামি করা হয়েছে অজ্ঞাতনামা ১ হাজার ২০০ শিক্ষার্থীকে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, মিছিলকারীদের ছোড়া ফুলের টবের আঘাতে তিতুমীর কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ছাত্র মো. সিদ্দিকুর রহমানের (২৩) দুই চোখ জখম হয়।