ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:৫৩ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

‘শিক্ষকদের বেতন লাখ টাকার বেশি থাকবে’

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ পরিবর্তিত বিশ্ব-পরিস্থিতিতে আধুনিক ও বিজ্ঞানসম্মত শিক্ষা ব্যবস্থার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন। তিনি বলেছেন,‘উন্নত বিশ্বের সাথে তাল-মিলিয়ে চলতে যে মানের শিক্ষা আমাদের দরকার তা অর্জন করা এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ।’
বর্তমান সরকার শিক্ষার উন্নয়নে যেভাবে কাজ করছে তাতে মানসম্মত শিক্ষা অর্জন সময়ের ব্যাপারমাত্র এ কথা উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন,‘এ ক্ষেত্রে আমাদের আরো এগিয়ে যেতে হবে’।
নুরুল ইসলাম নাহিদ আজ শনিবার দুপুরে চাঁদপুর জেলার কচুয়ায় ড. মনসুর উদ্দিন মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
দেশের অব্যাহত অর্থনৈতিক উন্নয়নের ফলে শিক্ষকদের বেতন ইতোমধ্যে দ্বিগুণ হয়েছে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন,এ ধারা অব্যাহত থাকলে আগামী কয়েক বছরের মধ্যে শিক্ষকদের বেতন লাখ টাকার নিচে থাকবে না।
তিনি বলেন, জনগণের আস্থা ও শ্রদ্ধা অর্জনের লক্ষ্যে নতুন প্রজন্মকে প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে শিক্ষকদের নিবেদিত প্রাণ হবে।
নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে আমাদের প্রধান লক্ষ্য গুণগত মান অর্জন। গুণগত এ মান রাতারাতি অর্জন করা সম্ভব নয়।
তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন স্থানে গুণগত মানের বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে উঠতে ৫/৭শ’ বছর সময় লেগেছে। তবে এক্ষেত্রে নিয়ামক শক্তি হচ্ছে শিক্ষক। প্রতিটি শিক্ষককে যদি আমরা নিবেদিত প্রাণ হিসেবে গড়ে তুলতে তাকে আর্থিক সাহায্য ও সমর্থন দিতে না পারি এবং তাকে যথাযথ সম্মান ও মর্যাদা না দেই- তবে মান-সম্মত শিক্ষার কাজটি আমাদের সহজে হবে না।’
ড.মনসুর উদ্দিন মহিলা কলেজ’র পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি গোলাম হোসেনের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর।
অন্যান্যের মধ্যে স্থানীয় পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার ও কলেজের অধ্যক্ষ তাপস কুমার দত্ত অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, যারা দেশে মাদ্রাসার নাম ভাঙ্গিয়ে ভোট নিয়েছিল তারা একটা মাদ্রাসারও বিল্ডিং করেনি।
‘এক সময় বলা হয়েছিল শেখ হাসিনাকে নৌকায় ভোট দিলে দেশে কোনো মাদ্রাসা থাকবে না’ এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, যারা এ কথা বলে ভোট নিয়েছিল তারা কোন মাদ্রাসায় বিল্ডিং করেছে তা দেখাতে পারবে না। নাহিদ বলেন,‘আমি সাত বছর ঘুরে বেড়িয়েছি প্রমাণ পাওয়ার জন্য কিন্তু পাইনি। শেখ হাসিনার সরকার ইতোমধ্যে ১ হাজার ৩শ ৩১টি মাদ্রাসায় বিল্ডিং তৈরি করেছে।
মন্ত্রী বলেন, মাদ্রাসা ও স্কুল এবং ডিগ্রি কলেজ ও ডিগ্রির মান সম্পন্ন মাদ্রাসা শিক্ষকদের বেতন সমান করা হয়েছে। দেশে এখন ৩৫টি মডেল মাদ্রাসা রয়েছে । সরকার মাদ্রাসায় অনার্স কোর্স চালু করেছে । তিনি বলেন, ‘মাদ্রাসায় আধুনিক শিক্ষা আমরা চালু করে দিয়েছি। মাদ্রাসা কোরআন হাদিস পড়ে যেমন আলেম হবে, তেমনি পিজিক্স, ক্যামেস্ট্রি পড়ে আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হবে। মাদ্রাসা থেকে উচ্চ-শিক্ষা গ্রহণ করে এখন অফিসারও হওয়া যাবে বলে শিক্ষামন্ত্রী মন্তব্য করেন।

http://www.bssnews.net/bangla/newsDetails.php?cat=6&id=328054&date=2016-02-06