প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

শামসুল হকের মৃত্যুতে শেখ হাসিনার জন্মদিনের কর্মসূচি স্থগিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭০তম জন্মদিন উপলক্ষে পূর্বঘোষিত আলোচনা সভা ও মিছিলসহ সকল কর্মসূচি স্থগিত করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী মাহবুবুল হক শাকিল গতরাতে জানান, সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হকের মৃত্যুতে শোক পালনের জন্য প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ তাদের কর্মসূচি স্থগিত করেছে।

এ কারণে আজ অনেক সংগঠনও তাদের পূর্বঘোষিত প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালনের কর্মসূচি স্থগিত করেছে।

প্রথিতযশা লেখক ও কবি সৈয়দ শামসুল হক গতকাল রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।

সৈয়দ হক এরআগে লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। সেখানে শেখ হাসিনা তাকে (সৈয়দ হক) দেখতে যান এবং চিকিৎসার যাবতীয় ব্যয়ভার গ্রহণের দায়িত্ব নেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম টেলিফোনে জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রখ্যাত এই লেখকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। বর্তমানে ওয়াশিংটনে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রী তার ভ্রমণের শেষ পর্যায়ে সৈয়দ হকের মৃত্যুর সংবাদে গভীর শোকাভিভূত হয়েছেন।

তিনি জানান, সৈয়দ শামসুল হককে জাতির বিবেক হিসেবে অভিহিত করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, তিনি সত্যের প্রতি নিবেদিত ছিলেন। তার মৃত্যুতে তিনি তার একজন শুভাকাক্সক্ষীকে হারিয়ে ব্যক্তিগতভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

প্রেস সচিব জানান, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সৈয়দ শামসুল হক বাঙালি, বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুকে একই সত্ত্বা হিসেবে দেখেছেন। তিনি তার শক্তিশালী লেখনীর মাধ্যমে জাতিকে সেক্যুলার দেশের স্বপ্ন দেখিয়েছেন।

সৈয়দ শামসুল হকের মৃত্যুতে সাহিত্য ও সংস্কৃতির ক্ষেত্রে জাতির জন্য অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে বলেও প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন।