রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলি

শক্তিমানের অন্তেষ্ট্রিক্রিয়ার পথেও গুলি, নিহত ৫

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে ৫ জন নিহত ও আরো অন্তত ১০ জন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে।

পুলিশ জানায়, নিহতদের মধ্যে ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রিক দলের প্রধান তপন জ্যোতি চাকমা বর্মার লাশও রয়েছে। নিহত অপর চারজন হলো- জনসংহতি সমিতির কর্মী সেতু লাল চাকমা (এমএন লারমা), প্রনব চাকমা, সুজন চাকমা ও গাড়ী চালক মো: সজিব।

এই ঘটনায় আহতদের মধ্যে আটজনের পরিচয় পাওয়া গেছে, তারা হচ্ছে- দিগন্ত চাকমা, অর্চিন চাকমা, অর্জুন চাকমা, জেলজি কুমার চাকমা, মিহির চাকমা, জীবন্ত চাকমা, কান্তি রঞ্জন চাকমা ও প্রীতি কুমার। হতাহতদের খাগড়াছড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

শুক্রবার দুপুরে রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কের বেতছড়ি কেংগালছড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

নানিয়ারচর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল লতিফ জানান, নিহত উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমার মৃতদেহ অন্তেষ্ট্রিক্রিয়ার জন্য নেওয়ার পথে রাঙ্গামাটি-খাগড়াছড়ি সড়কে ওই হামলার ঘটনা ঘটে।

ওসি জানান, শক্তিমান চাকমার মৃতদেহ অন্তেষ্ট্রিক্রিয়ার জন্য নেওয়ার পথে আজ সকাল ১১ টার দিকে কুকুর-মারা এলাকায় একদল অজ্ঞাত দুষ্কৃতিকারী এই হামলা চালায়।

হতাহতদের দেখতে পুলিশের উধ্বত্মন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে ছুটে গেছেন।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে উপজেলা সদরে নিজ কার্যালয়ের সামনে সন্ত্রাসীদের হাতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট শক্তিমান চাকমা। এসময় তাকে বহনকারি মোটরসাইকেল চালক রূপম চাকমাও গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন। -বাসস