Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:২৯ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২০শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

লিবিয়ায় বাংলাদেশীসহ কয়েকশ মানুষের মৃত্যুর আশংকা

অবৈধ পথে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টাকালে লিবিয়া উপকুলে নৌকাডুবিতে বাংলাদেশীসহ কয়েকশ মানুষের মৃত্যুর আশংকা করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত দুইশ মৃতদেহ উদ্ধারের কথা জানানো হয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে। লিবিয়া উপকুলে যুয়ারা বন্দরের কাছে কয়েকশ অভিবাসী নিয়ে আসা দুটি নৌকা উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। খবর বিবিসি বাংলা।
একটি অসমর্থিত সূত্র বলছে একটি হাসপাতালে অন্তত একশো মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছে যাদের মধ্যে সিরিয়া, বাংলাদেশ ও সাব সাহারান আফ্রিকার দেশগুলোর নাগরিক রয়েছেন।
প্রথম যে নৌকাটি বৃহস্পতিবার সকালে সাহায্যের জন্য সংকেত দেয় সেটিতে ৫০ জনের মত শরণার্থী ছিল। তবে ২য় যে নৌকাটি পরে ডুবে যায় সেটিতে ছিল চারশ’র মত শরণার্থী। লিবিয়ার কোষ্টগার্ড বলছে সেখানে এখনো উদ্ধার অভিযান চলছে, তবে আশংকা করা হচ্ছে নৌকাতে যারা ছিলেন তাদের বেশিরভাগ মারা গেছেন।
পশ্চিম ত্রিপলির যুয়ারা এলাকার একজন বাসিন্দা বিবিসিকে বলেছেন, সেখানকার একটি হাসপাতালে অন্তত ১০০ টি মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সিরিয়া, বাংলাদেশ ও সাব-সাহারান আফ্রিকার দেশগুলো থেকে যেসব শরণার্থী আসছিল তারা এই মর্মান্তিক মৃত্যুর শিকার হয়েছেন বলে জানাচ্ছেন ঐ বাসিন্দা। তবে এই তথ্যটির সত্যতা এখনো যাচাই করা সম্ভব হয়নি।
নৌকা দুটি থেকে অন্তত ২০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। জাতিসংঘ বলছে এ বছরে লিবিয়া থেকে ইতালির উদ্দেশে নৌকায় করে সমুদ্র পথে যাওয়ার চেষ্টা করলে এ পর্যন্ত দুই হাজার চারশ’র বেশি শরণার্থী মারা গেছে। এদের অনেকেই লিবিয়ার রাজনৈতিক সংকটের কারণে মানবপাচারকারিদের সহায়তায় নৌকায় করে বিপদসংকুল এই সমুদ্র পথে যাত্রা করছে।
বিবিসির উত্তর আফ্রিকার সংবাদদাতা রানা জাওয়াদ তিউনিস থেকে জানাচ্ছেন লিবিয়ার কোস্টগার্ডের সমুদ্রে এ ধরণের বড় মাপের উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করার সক্ষমতা নেই।