ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:৩২ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

লাল কার্ড দেখিয়ে বিদেশ পাঠিয়ে দেবে খালেদাকে

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন। আপনাদের সহযোগিতা আমাদেরকে অনুপ্রানিত করবে।

 

নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া যা করছেন তাতে জনগণের ধৈর্য্য ও সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। এমন দিন আসবে যেদিন বেগম খালেদা জিয়াকে লাল কার্ড দেখিয়ে জনগণ দেশের বাইরে পাঠিয়ে দেবে
তিনি বলেন, বেগম জিয়া মিথ্যাচারিণি এবং খল নায়িকা। তিনি মিথ্যা কথা বলতে পারদর্শী। জন্ম তারিখ থেকে শুরু করে রাজনীতিতে মিথ্যে বলা তার অভ্যাসে দাঁড়িয়েছে।
মন্ত্রী আজ মতিঝিল বিসিআইসি ভবন মিলানায়তনে নব গঠিত শ্রমিক-কর্মচারী-পেশাজীবী-মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদের সাথে মতিঝিলের প্রতিটি ব্যাংক বীমা প্রতিষ্ঠানের সিবিএ এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রাতিষ্ঠানিক কমান্ডের মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় শ্রমিক জোটের সভাপতি শিরীন আখতার এমপি।
বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেক মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সহ-সভাপতি ইসমত কাদির ঘামা, ও গার্মেন্টস শ্রমিক লীগের নেতা এ জেড এম কামরুল আনাম প্রমুখ।
মন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, তিনি যে মিথ্যা কথা বলছেন তার বলিষ্ঠ উদাহরণ হচ্ছে মার্কিন ৬ জন কংগ্রেসম্যান পত্রিকায় কোন বিবৃতি দেননি। অথচ বিএনপি কংগ্রেসম্যানদের নাম ব্যবহার করে বিবৃতি ছাপিয়ে দিয়েছে। বিজেপি নেতা অমিত শাহ বেগম খালেদা জিয়ার সাথে টেলিফোনে কথা বলেননি অথচ বিএনপি বলছে ‘অমিত শাহ বেগম জিয়ার স্বাস্থ্যের খোঁজ-খবর নিয়েছে’।
মন্ত্রী বলেন, গতকাল টিআর পরিবহনের দেড় কোটি টাকা মূল্যের একটি গাড়ী পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এখন মানুষ ভয়ে গাড়ীতে উঠেনা। ৮৬ সালে আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটানা কোন অবরোধ দেয়নি। বেগম জিয়া একজন পাষন্ড ব্যক্তি।
তিনি বলেন, আমার খালেদা জিয়ার কাছে প্রশ্ন আপনি কার বিরুদ্ধে আন্দোলন করছেন। সরকার না জনগনের বিরুদ্ধে। মনে হয় আপনি জনগণের বিরুদ্ধে আন্দোলন করছেন।
তিনি বলেন, এখন সময় হয়েছ্ েএখন প্রয়োজন জাতীয় ঐক্য। আমাদের ধমনিতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। আগামী ৩০ জানুয়ারী দলমত নির্বিশেষে সবাইকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জমায়েতের জন্য তিনি আহ্বান জানান।