ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:১৭ ঢাকা, বুধবার  ২৩শে মে ২০১৮ ইং

“লন্ডনে গিয়ে শেখ হাসিনাকে উৎখাতের ষড়যন্ত্র করছে খালেদা জিয়া”

নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরে যারা স্বাধীনতাকে ধ্বংস করার চেষ্টা করেছিল তারা বসে নেই, তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করছে। কারন, তাকে খুন পারলেই আর কেউ তার মত সাহস নিয়ে দাঁড়াবে না। খুনের মধ্য দিয়ে যারা রাজনীতিতে এসেছে তাদের কাছ খুনই মুল কথা।

শুক্রবার সকালে সদরের ভেদুরিয়া ফেরী ও লঞ্চঘাট, খেয়াঘাট ও ইলিশা নদী ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।
খালেদা জিয়া লন্ডনে গিয়ে শেখ হাসিনাকে উৎখাত করার জন্য ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে নৌ পরিবহনমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের জন্য শেখ হাসিনা যা করেছে তাকে কোনমতেই উৎখাত করা যাবে না।
শাজাহান খান বলেন, গনতন্ত্রের নামে যারা পেট্রোল বোমা মারে তারা গনতন্ত্রের হত্যাকারী, সেই হত্যাকারিদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
বর্তমান সরকারের নানা উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনা দেশকে উন্নত দেশের নিয়ে যাওয়াযর জন্য উন্নয়নের ধারা সৃষ্টি করেছেন। এ সময় নৌ মন্ত্রী ঈদে যাত্রী ভোগান্তি কমিয়ে আনার পাশাপাশি নৌ নিরাপত্তার কথাও জানান।
নৌ দুর্ঘটনা অনেক কমে গেছে উল্লেখ করে নৌ পরিবহনমন্ত্রী মন্ত্রী সাজাহান খান বলেন, বিগত ৪টি সরকারের আমলে সবচেয়ে বেশী দুর্ঘটনা ঘটেছে। তবে বর্তমান সরকারের আমলে নৌ দুর্ঘটনা হ্রুাস পেয়েছে। নৌ পথকে নিরাপদ করতে যে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তা আগামীতে দুর্ঘটনার পরিমান শূন্যের কোঠায় নিয়ে আসা সম্ভব হবে। ঈদে যাত্রী বিরম্বনা ও যাত্রী ভোগান্তি কমিয়ে আনতে আমাদের নির্দেশনা রয়েছে।
নৌ মন্ত্রীর সাথে ছিলেন বিআইডব্লিটিএ চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন, বিআইডব্লিটিসি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, নৌ পরিবহন মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব আরিফ হোসেন। এছাড়াও ভোলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মাহমুদুর রহমান, জেলা পরিষদ প্রশাসক আবদুল মমিন টুলু, সদর উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো: ইউনুছসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে ইলিশা ও রাজাপুরের হাজারো মানুষ বিভিন্ন ব্যানার, ফেস্টুন ও প্লেকার্ড নিয়ে রাস্তার দুই পাশে দাড়িয়ে নদী ভাঙনের হাত থেকে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন করে। এ সময় তারা নৌমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি দেন।