Press "Enter" to skip to content

রাহুলের পরিবর্তে কংগ্রেসের দায়িত্ব চান আসলাম

অলিম্পিক হকিতে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করা ও সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আসলাম শের খান কংগ্রেস সভাপতি পদে রাহুলের স্থলাভিষিক্ত হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছেন। আগামী দু’বছরের জন্য যেন তাঁকে দায়িত্ব দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন তিনি। খবর এনডিটিভির।

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে বিপর্যয়ের পর রাহুল গান্ধী কংগ্রেস সভাপতি পদ ছাড়ার কথা বলেছেন। তাঁর ইচ্ছা নেহেরু- গান্ধী পরিবারের বাইরে কেউ কংগ্রেস সভাপতির দায়িত্ব নিন। এ কথা জানার পরে আমি তাঁকে চিঠি লিখি।’

আসলাম আরো বলেন, ‘চিঠিতে আমি লিখেছি যদি আপনি সভাপতি পদে থেকে যেতে চান তাহলে সব দিক থেকেই ভালো হয়। কিন্তু যদি আপনি না চান তাহলে দু’বছরের জন্য আমি এই দায়িত্ব নিতে আগ্রহী।’

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের পর কংগ্রেস সভাপতি পদ ছাড়তে চান রাহুল। নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের দিন থেকে নিজের সিদ্ধান্তে এখনও অনড় রয়েছেন তিনি।

কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠক থেকে শুরু করে একাধিক দলীয় মাধ্যমে নিজের বক্তব্য স্পষ্ট করে জানিয়েছেন। এখন কেরালায় নিজের লোকসভা কেন্দ্রে সফরে গিয়েছেন রাহুল। এর আগে কংগ্রেসের প্রথম সারির প্রায় সমস্ত নেতা তাঁকে পদে থেকে যাওয়ার অনুরোধ করেছেন। কিন্তু রাহুল নিজের সিদ্ধান্তে অনড়।

রাহুল নির্বাচনের পর জানান, নির্বাচনে বিপর্যয়ের দায় তাঁর। আর সেই দায় স্বীকার করেই তিনি পদ ছাড়তে চান। পাশাপাশি রাহুল এও জানান, কংগ্রেসের সভাপতি নেহেরু-গান্ধী পরিবারের মধ্যে থেকেই হতে হবে এমন কোনও মানে নেই। বাইরের কেউ হতেই পারেন। এমতাবস্থায় চিঠি লেখেন আসলাম।

সংবাদ সংস্থাকে আসলাম আরও বলেন, ‘আমি চিঠি লিখেছিলাম যাতে দলে আমূল পরিবর্তন হয়। কোনও ব্যক্তিগত স্বার্থ চরিতার্থ করার বাসনা আমার নেই। দল সবচেয়ে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আর এখনই আমি দায়িত্ব নিতে আগ্রহী।’

তবে নির্বাচনে কংগ্রেসের এমন ব্যর্থতার জন্য রাহুল কে দায়ী মনে করেন না আসলাম।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনে জিততে যা যা করা দরকার রাহুল তার সবই করেছেন। আসলে কংগ্রেস মানুষের কাছে পৌঁছাতে পারেনি। আর তাই দলে যে পরিবর্তন প্রয়োজন এ ব্যাপারে কোনও সন্দেহ নেই। যদি আমার চেয়েও ভালো কেউ থাকেন তাহলে আমি চাইব তিনি-ই সভাপতি হন।’

শেয়ার অপশন: