Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:১৫ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ
রাষ্ট্রপতির বিজয় দিবসের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন

রাষ্ট্রপতির বিজয় দিবসের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ৪৬তম বিজয় দিবস উপলক্ষে আজ রাজধানীর প্যারেড স্কোয়ারে কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন।

জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত কুচকাওয়াজে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ দেন। সেনাবাহিনীর নবম পদাতিক ডিভিশন কুচকাওয়াজ পরিচালনা করে।

কুচকাওয়াজের অধিনায়ক মেজর জেনারেল ওয়াকার-উজ-জামানের পরিচালনায় একটি খোলা জিপে চড়ে বিজয় দিবসের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও সালাম গ্রহণ করেন রাষ্ট্রপতি।

সর্বস্তরের হাজারো জনতা দুই ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ প্রত্যক্ষ করেন।

সেনাবাহিনীর ফ্লাইপাস্ট, বিমান বাহিনীর এরোবেটিক ডিসপ্লে এবং সেনাবাহিনীর প্যারাসুট ছত্রীসেনাদের আকাশ থেকে নিচে অবতরণের দৃশ্য দর্শকদের মুগ্ধ করে।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বাংলাদেশ নৌবাহিনী, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী, বাংলাদেশ পুলিশ, কোস্ট গার্ড, আনসার, বিজিবি, বাংলাদেশ ক্যাডেট কোর কুচকাওয়াজে অংশ নেয়। সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ও তাদের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। তিনি কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণকারী অধিনায়কদের সঙ্গেও শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জাতীয় চার নেতা ও সাত বীরশ্রেষ্ঠ’র প্রতিকৃতি দিয়ে কুচকাওয়াজ ময়দান সাজানো হয়।

সকাল ১০টায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামদি প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক ও তিন বাহিনীর প্রধানগণ তাঁকে অভ্যর্থনা জানান।

এর আগে সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটের দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে পৌঁছালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক ও তিন বাহিনীর প্রধানগণ তাঁকে অভ্যর্থনা জানান।

সাবেক রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এইচ এম এরশাদ, মন্ত্রী পরিষদের সদস্যবৃন্দ, ডেপুটি স্পিকার, সিইসি, বিদেশী কূটনীতিক, মুক্তিযোদ্ধা, উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাগণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী ভারতীয় ২৭জন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও রাশিয়া সশস্ত্র বাহিনীর একটি প্রতিনিধিদলও উপস্থিত ছিলেন।