শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৪:৩০ ঢাকা, শনিবার  ২৩শে ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ইং

চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লায়

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল হলে যুদ্ধের ঘোষণা দেয়া হবে : হেফাজত

সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিলের ষড়যন্ত্র প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মাইনুদ্দীন রুহী বলেছেন, রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল হলে চট্টগ্রাম থেকে যুদ্ধের ঘোষণা দেয়া হবে।

শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লায় এক সমাবেশ থেকে এই ঘোষণা দেয়া হয়।

সমাবেশে হেফাজতে ইসলামে যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মাইনুদ্দীন রুহী বলেন, ‘আমরা শাপলা চত্বরে রক্ত দিয়েছি। প্রয়োজনে আরও রক্ত দেব। ইসলামকে ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা করে ছাড়ব।’ ‘আগুন নিয়ে খেলবেন না। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেত্রী, র‌্যাব-পুলিশের প্রধান সবাই মুসলমান। আসুন সবাই মিলে ইসলাম রক্ষা করি।’ রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল হলে বাংলাদেশের স্বাধীনতা রক্ষা করতে পারবেন না। চট্টগ্রাম থেকে যুদ্ধের ঘোষণা দেয়া হবে।

সমাবেশে হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, ‘এবারের সংগ্রাম রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম রক্ষার সংগ্রাম।  ইসলাম রক্ষার জন্য এদেশে কোটি তৌহিদী জনতা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেবে।’

তিনি বলেন, ২৭ মার্চ রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম সংবিধানে থাকবে কি না, সে বিষয়ে আদেশের দিন ধার্য আছে। সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলামকে বাদ দেয়ার ষড়যন্ত্র করা হলে তা প্রতিহত করা হবে। যদি রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়া হয়, তাহলে হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। প্রয়োজনে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেব। তবুও এই সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন হতে দেব না। হেফাজত ইসলাম কারও পক্ষে কারও বিপক্ষে বলবে না। আমরা শুধু ইসলামের পক্ষে বলব। কাউকে গদিতে বসানো আর কাউকে গদি থেকে নামানো তাদের কাজ নয় বলেও দাবি করেন বাবুনগরী।

পূর্বঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী শুক্রবার জুমার নামাজের পর চট্টগ্রাম নগরীতে পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করে হেফাজতে ইসলাম।

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, কেন্দ্রীয় অর্থ সচিব ইলিয়াছ ওসমানি, হেফাজতের ঢাকা মহানগর কমিটির যুগ্ম সচিব মুফতি ফখরুল ইসলাম, হেফাজত নেতা কামরুল ইসলাম কাশেমী, আ ন ম ওয়াহেদ উল্লাহ, আনোয়ার হোসেন রব্বানি, জয়নাল আবেদিন কুতুবি, জুনায়েদ জহুর প্রমুখ।