ডোনাল্ড ট্রাম্প
ডোনাল্ড ট্রাম্প

রাশিয়া-চীনের সঙ্গে কাজ করতে চায় ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, রাশিয়া ও চীন সহযোগিতা করলে তিনি তাদের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী।

শুক্রবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে ট্রাম্প বলেন, রাশিয়ার ওপর নতুন করে আরোপিত নিষেধাজ্ঞা একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত চলতে পারে। তবে তারপর তা তুলে নেয়া হতে পারে।

তিনি  বলেন, এক চীন নীতি নিয়ে আলোচনা হতে পারে। এক চীন নীতির কারণে দেশটি তাইওয়ানকে আলাদা ভূখণ্ড মনে করে না।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের একটি সিনেট কমিটি মার্কিন নির্বাচনে রুশ হস্তক্ষেপ প্রচেষ্টার দাবি তদন্ত করবে।

এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, ইসলামি চরমপন্থা ও অন্যান্য উগ্রপন্থীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে মস্কো যদি ওয়াশিংটনকে সহায়তা করে তাহলে দেশটির ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হতে পারে। তিনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে একটি বৈঠকের আশা ব্যক্ত করেন।

বেইজিংয়ের প্রসঙ্গ টেনে ট্রাম্প বলেন, এক চীন নীতির বিষয়টি আলোচনা সাপেক্ষ। গত মাসে তিনি এক চীন নীতির ব্যাপারে প্রশ্ন তুললে বেইজিংয়ের গণমাধ্যমে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানানো হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করতে রাশিয়া সাইবার হামলা চালায় বলে মার্কিন গোয়েন্দারা তথ্য দিয়েছে। ট্রাম্প প্রথম থেকে এই অভিযোগ নাকচ করে আসছে। চলতি সপ্তাহের শুরুতে একটা তথ্য প্রকাশিত হয় যে রাশিয়ার নিরাপত্তা কর্মকর্তারা ট্রাম্পের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দরকষাকষি করছে।

এ ব্যাপারে ট্রাম্প বলেন, খবরটি ভুয়া। তিনি  ঘোষণা দেন, আগামী ৯০ দিনের মধ্যে তার টিম এ ব্যাপারে প্রতিবেদন তৈরি করবে। খবর: এএফপি।