Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:৫৬ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

হাসানুল হক ইনু
তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু

রাজাকাররাই আজ জঙ্গিবাদী: তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ‘মুক্তির ইতিহাস শোনো’ শীর্ষক এক আলোচনায় বলেছেন, একাত্তরের রাজাকাররাই আজ জঙ্গিবাদী।

ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে পক্ষ-বিপক্ষ ছিল। তৎকালীন পাকিস্তানী হানাদারদের সাথে হাত মিলিয়েছিল এদেশের কিছু ঘৃণ্য মানুষ- তারা রাজাকার। তারাই আজ জঙ্গিবাদী। দেশকে এগিয়ে নিতে হলে জঙ্গি এবং মাদক পরিহার করতে হবে। দেশপ্রেমিক হতে হবে, দেশের শত্রুও চিনতে হবে। আর মাতা-পিতা এবং শিক্ষকদের জন্য বুকে রাখতে হবে বিরাট সম্মান। এভাবেই বাংলাদেশকে তার নিজের পথে এগিয়ে নেয়ার দায়িত্ব নিতে হবে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে।’

তথ্যমন্ত্রী আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর বিএএফ শাহীন কলেজে ‘আমরা মানুষ ফাউন্ডেশন’ আয়োজিত ‘মুক্তির ইতিহাস শোনো’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতা করছিলেন।

বিএএফ শাহীন কলেজের অধ্যক্ষ গ্রুপ ক্যাপ্টেন আহসানের সভাপতিত্বে প্রেসিডেন্ট আব্দুল হামিদ মেডিকেল কলেজের পরিচালক রাসেল আহমেদ তুহিন অনুষ্ঠানটি উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু জাতির সুপ্রাচীন ইতিহাস, মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং ভবিষ্যৎ অগ্রযাত্রা নিয়ে পাঁচ শ’ ছাত্র-ছাত্রীর সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি তাদের বাঙালি জাতিসত্তার বিকাশ ও স্বাধীন হওয়ার অমর কাহিনী শোনান।

ইনু তাঁর চল্লিশ মিনিটের বক্তৃতায় বলেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন জাতি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। লাখো শহীদের রক্ত, মা-বোনের আত্মত্যাগ, সন্তানহারা মায়ের কান্না মিশে আছে আমাদের এই মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে। তাদের প্রত্যেকের জন্য চিরন্তন শ্রদ্ধাঞ্জলি।’

অনুষ্ঠানের আগে কলেজ ময়দানে সমবেত ছাত্র-ছাত্রীদের সামনে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

আয়োজক সংস্থার উপদেষ্টা রাশেক রহমান, প্রাণ ফুডস লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক আলী হাসান আলম এবং আরএফএল প্লাস্টিকের বিপণন প্রধান এস এম আরাফাতুল রহমান বিশেষ অতিথি হিসেবে এবং আয়োজক সংস্থার সাধারণ সম্পাদক শামীমা রহমান তুষ্টি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য, এ আয়োজনের মধ্য দিয়ে নতুন প্রজন্মের কাছে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস পৌঁছাবার জন্য দেশের ৭১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ‘আমরা মানুষ ফাউন্ডেশন’র উদ্যোগে ‘মুক্তির ইতিহাস শোনো’ অনুষ্ঠানের সূত্রপাত ঘটলো।