ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:১৪ ঢাকা, রবিবার  ২১শে অক্টোবর ২০১৮ ইং

রাজধানীতে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় দুই বখাটে গ্রেপ্তার

পুরান ঢাকার সূত্রাপুরে নির্মাণাধীন ভবনে স্বামীকে আটকে রেখে তার স্ত্রীকে (২০) ধর্ষণের অভিযোগ দুই বখাটেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, হৃদয় চৌধুরী (৩০) ও লিঠু (২৪)।

সূত্রাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রেজাউল হাসান বলেন, ‘বখাটে লিঠু ও হৃদয়কে বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে সূত্রাপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা ওই নারীকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। আগে থেকেই এরা খারাপ প্রকৃতির ছিল। এদের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের যোগাযোগ থাকার তথ্য রয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে সূত্রাপুরের লক্ষীবাজার এলাকার সোহরাওয়ার্দী কলেজের পাশে একটি নির্মাণাধীন ভবনে ওই নারী ধর্ষণের শিকার হন। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় সূত্রাপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

সূত্রাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রেজাউল হাসান জানান, বৃহস্পতিবার ভোরে ধর্ষণের শিকার হলেও বিষয়টি রাতে পুলিশকে জানানো হয়। খবর পাওয়ার পরপরই ওই নারীকে উদ্ধার করে চিকিৎসা ও প্রয়োজনীয় ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় তার স্বামী বাদী হয়ে হৃদয় ও লিঠু নামে দুই ধর্ষকদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে রাতেই এজাহারভুক্ত দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশের একাধিক টিম অভিযান চালায়।

ধর্ষণের শিকার গৃহবধু ঢামেক হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, তার স্বামী সূত্রাপুরের লক্ষীবাজার এলাকায় সোহরাওয়ার্দী কলেজের পাশে একটি নির্মাণাধীন ভবনে নিরাপত্তাকর্মী হিসেবে কাজ করেন। তিনিও স্বামীর সঙ্গে সেখানেই থাকেন। স্থানীয় বখাটে যুবকেরা মাঝেমধ্যেই জোর করে ওই ভবনে উঠে মাদক সেবন করে আসছিল। বাধা দিতে গেলে হুমকি দিত। গতকাল ( বৃহস্পতিবার) ভোর ৪টার দিকে দুই বখাটে সেখানে এসে তার স্বামীকে ঘুম থেকে ডেকে তোলে। এরপর এক বখাটে জরুরি কাজের কথা বলে তার স্বামীকে পাঁচ তলায় নিয়ে যায়। ওই যুবকের সঙ্গে আসা অপর বখাটে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনার কিছু সময় পরে তার স্বামী নিচে এসে ধর্ষণের কথা জানতে পারেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওই নারী বলেন, তার স্বামীকে কৌশলে পাঁচতলায় নিয়ে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে আটকে রাখা হয়েছিল। পরে বখাটেরা হুমকি দিলে ভয়ে কি করা যায় তা নিয়ে তারা দ্বিধায় ছিলেন। রাতে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তারা বিষয়টি পুলিশকে জানান।