Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:১১ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

“রাজধানীতে কিডনী অপসারণকারী চক্র গ্রেফতার”

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও গাবতলী বাস টার্মিনাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে আন্তুর্জাতিক কিডনী ক্রয়-বিক্রয় চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে।
গ্রেফতারকৃতরা হলো আব্দুল জলিল, শেখ জাকির ইবনে আজিজ ওরফে শাকির, আশিকুর রহমান ওরফে জেবিন, ফজলে রাব্বি ও জিহান রহমান।
এ সময় তাদের কাছ থেকে দুটি চেতনানাশক ইনজেকশন, সিরিঞ্জ, একটি ধারালো ছোরা ও একটি তোয়ালে উদ্ধার করা হয়।
ডিবি সূত্র জানায়, কিডনী ক্রয়-বিক্রয় চক্রের দালাল আব্দুল জলিল জয়পুরহাট থেকে কিডনী বিক্রির উদ্দেশ্যে আবু হাসান নামের এক যুবককে নিয়ে ঢাকায় আসার পথে গাবতলীতে গ্রেফতার হয়।
উদ্ধার হওয়া আবু হাসান গোয়েন্দা পুলিশকে জানিয়েছে, একটি কিডনীর বিনিময়ে দালাল জলিল তাকে একটি সিএনজি চালিত অটোরিক্সা কিনে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকায় নিয়ে আসে।
গ্রেফতারের পর আব্দুল জলিলের তথ্যানুযায়ী পুলিশ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা একাডেমীর পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে অপর ভিকটিম মাহাবুবুর রহমান শান্তকে উদ্ধার করে। একই স্থান থেকে আরও ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
জিজ্ঞাসাবাদে আশিকুর রহমান ওরফে জেবিন জানায়, মাত্র ২০ হাজার টাকার লোভে সে তার পূর্ব পরিচিত মাহাবুবুর রহমান শান্তকে রক্ত দেয়ার কথা বলে সেখানে নিয়ে এসেছে।
গ্রেফতারকৃত অপর শেখ শাকির জানায়, সে ৪ লাখ টাকার বিনিময়ে তার অন্য সহযোগীদের নিয়ে শান্তকে ইনজেকশন দিয়ে অচেতন করে কিডনী অপসারনের জন্য আন্তর্জাতিক দালাল চক্রের হাতে তুলে দেয়ার পরিকল্পনা করেছিল।
জিজ্ঞাসাবাদে শেখ শাকির আরও জানায়, তারা কিডনী অপসারনের পর শান্তকে হত্যা করে বুড়িগঙ্গা নদীতে ফেলে দেয়ার পরিকল্পনা করেছিল।