ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:৫৯ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

রাজউকের অনিয়মের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ সংসদীয় কমিটির

সরকারী হিসাব সম্পর্কিত  সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় পূর্বাচল নতুন শহর প্রকল্পে স্বায়ত্ত্বশাসিত ক্যাটাগরিতে রাজউক এর কর্মকর্তা ও কর্মচারীদেরকে অনিয়মিতভাবে ৫০টি প্লট বরাদ্দ প্রদান করার বিষয় তদন্ত করে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।
আজ সংসদ ভবনে কমিটির সভাপতি ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এ পরামর্শ দেয়া হয়।
সভায় এ সম্পর্কে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি একটি তদন্ত কমিটি গঠনের মাধ্যমে যারা নীতিমালার ব্যত্যয় ঘটিয়ে বরাদ্দ প্রদান করেছে চিহ্নিত করার সুপারিশ করা হয়।
কমিটির সদস্য মোঃ আব্দুস শহীদ, পঞ্চানন বিশ্বাস, বেগম রেবেকা মমিন, মোঃ শামসুল হক টুকু, মঈণ উদ্দীন খান বাদল এব্ং মোঃ রুস্তম আলী ফরাজী সভায় অংশগ্রহণ করেন।
সভায় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়াধীন রাজধানী উন্নয়ন কর্তপক্ষের (রাজউক) ২০০৫-২০০৮ অর্থ বছরের হিসেবের উপর বাংলাদেশের মহা হিসাব-নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের বার্ষিক অডিট রিপোর্ট ২০১০-২০১১ এর অনিষ্পন্ন অডিট আপত্তির উপর কমিটির ১ম,৬ষ্ঠও ২৫তম বৈঠকে গৃহীত সিদ্ধান্ত ও সাধারন সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা করা হয়। সাথে সাথে গৃহীত সিদ্ধান্তগুলো দ্রুত বাস্তবায়নের সুপারিশ করা হয়।
সভায় গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়াধীন রাজধানী উন্নয়ন কর্তপক্ষের (রাজউক) প্লট বরাদ্দ ও উন্নয়ন কার্যক্রমের উপর ২০০০-২০১০ অর্থ বছরের হিসেবের উপর বাংলাদেশের মহা হিসাব-নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের ইস্যুভিত্তিক অডিট রিপোর্ট ২০০৯-২০১০ এর অডিট আপত্তি বা মন্তব্যের বিভিন্ন অনুচ্ছেদের ১০টি অডিট আপত্তির ওপর আলোচনা করা হয়। এ সব অডিট আপত্তির জড়িত টাকার পরিমান ৬৪ কোটি ১৫ লক্ষ ১ হাজার ৭২৮ টাকা। আপত্তিগুলো কমিটি থেকে দেয়া নির্দেশনার আলোকে দ্রুত নিষ্পত্তির পরামর্শ দেয়া হয়।
সভায় একই পরিবারের স্বামী-স্ত্রী,পিতা-মাতা ও পুত্রগণ পৃথকভাবে প্লট বরাদ্দের আবেদন করলে তাদের সকলকে অনিয়মিতভাবে প্লট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে মর্মে অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি ভবিষ্যতে এ ধরনের দৃষ্টিকটু পদক্ষেপ গ্রহণ না করার সুপারিশ করে।
সভায় অতিরিক্ত বা খন্ড জমির মূল্য দ্বিগুন হারে আদায় না করায় ৬৯ লক্ষ ১৮ হাজার ৩ শত ২০ টাকা আর্থিক ক্ষতি মর্মে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি অনাদায়ী টাকা ৩ মাসের মধ্যে আদায় করে প্রমানক অডিট অফিসে জমাদানের মাধ্যমে আপত্তিটি নিষ্পত্তি করে কমিটিকে অবহিত করার পরামর্শ দিয়েছে।
সভায় বলা হয় নীতিমালা অনুযায়ী প্লট বরাদ্দ পাওয়ারযোগ্য আবেদনকারীগণকে বরাদ্দ না দিয়ে আনুকূল্য প্রদর্শণপূর্বক বরাদ্দ পাওয়ার অযোগ্য আবেদনকারীগণকে প্লট বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। এ বিষয়ে অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি যে সকল আবেদনকারী প্লট বরাদ্দ পাননি তাদেরকে প্লট বরাদ্দ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে।
সভায় বলা হয় সিডিউলের রেট অপেক্ষা অধিক হারে পরিবহনকৃত মাটির মূল্য নির্ধারণ করে প্রাক্কলন প্রস্তুত এবং সম্পাদিত কাজের মূল্য পরিশোধ করায় ৩২ কোটি ৫৩ লক্ষ ১২ হাজার ৫ শত ৮৭ টাকা আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এ অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি অডিটকে বাস্তবতার নিরিখে আপত্তি প্রদানের এবং অনধিক ১৫ দিনের মধ্যে প্রমানক জমাদান সাপেক্ষে আপত্তি নিষ্পত্তির সুপারিশ করে।
সভায় বলা হয় নিম্নহারে কাজ সম্পাদনের সুযোগ থাকা সত্ত্বেও প্রতিযোগিতার পদক্ষেপ গ্রহণ না করে একক দরপত্রের ভিত্তিতে অধিক দরে পরিবহনকৃত মাটি বা বালির মূল্য পরিশোধ করায় ৩ কোটি ৫০ লক্ষ ৪৮ হাজার ৯ শত ৯৯ টাকা আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এছাড়া পিপি ও সংশোধিত পিপিতে সংস্থান না থাকা সত্ত্বেও উপদেষ্টা নিয়োগ করত অনিয়মিতভাবে ৭৪ লক্ষ ১ শত ৭৯ টাকা ব্যয়,ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির আনুমোদন ছাড়া চুক্তিপত্রের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে সংশোধিত প্রাক্কলন অনুমোদনপূর্বক ১৯ কোটি ৯৭ লক্ষ ২৭ হাজার ৫ শত ৬২ টাকা অনিয়মিত ব্যয় হয়েছে। এ সব বিষয়ে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি আপত্তি নিষ্পত্তির সুপারিশ করে।
সভায় বলা হয় আবাসিক হিসেবে বরাদ্দকৃত প্লটের লীজ ডিডের শর্ত উপেক্ষা করে গার্মেন্টস শিল্প প্রতিষ্ঠা করা সত্ত্বেও একই এলাকার বাণিজ্যিক প্লটের নিলাম মূল্যে অর্থ আদায়ের পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় ১ কোটি ২৮ লক্ষ ২৭ হাজার ৭ শত ৫০ টাকা ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে উত্থাপিত অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি অনধিক ৬ মাসের মধ্যে মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে কমিটিকে অবহিত করার সুপারিশ করে।
সভায় বলা হয় পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় ও একনেক কর্তৃক অনুমোদিত পিপির নির্দেশের পরিপন্থীভাবে বিটুমিনাস কার্পেটিং সড়কের স্থলে শুধুমাত্র মেকাডাম সড়ক নির্মাণ করে বিল পরিশোধ এবং নির্মিত সড়ক সম্পূর্ন বিনষ্ট হওয়ায় ৫ কোটি ৪২ লক্ষ ৬৬ হাজার ৩ শত ৭১ টাকা আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে অডিট আপত্তির প্রেক্ষিতে কমিটি বিষয়টি তদন্ত করে প্রতিবেদন অনধিক ১মাসের মধ্যে কমিটিকে অবহিত করার সুপারিশ করে।
সভায় সিএন্ডএজি মাসুদ আহমেদ, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, বিভাগ এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।