ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:৩১ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

যুদ্বাপরাধীর ফাঁসি স্থগিত চায় হিউম্যান রাইটস!

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের আমির যুদ্বাপরাধী মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির আদেশ স্থগিতের আহ্বান জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)।

সোমবার নিউইয়র্ক থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো মানবাধিকার সংস্থাটির এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

বার্তায় বিচার নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলা হয়, বিচার কাজে নিজামীকে আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য মাত্র চারজন সাক্ষী উপস্থাপনের অনুমতি দেয়া হয়। তাকে প্রসিকিউটরের সাক্ষীদের চ্যালেঞ্জ করার ক্ষমতাও দেয়া হয়নি।

এছাড়া একজন বিচারপতির কথোপকথন স্কাইপে ফাঁস হওয়ায় এ বিচার আরও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

এসব বিষয় উল্লেখের পাশাপাশি গুরুত্বপূর্ণ মামলাটির বিচার আন্তর্জাতিক মানদণ্ড মেনে হওয়া নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ এবং ন্যায় বিচার নিয়ে প্রশ্ন থাকায় রায় কার্যকর করা থেকে বিরত থাকার জন্য বাংলাদেশ সরকারকে আহ্বান জানায় সংস্থাটি।

সংস্থাটি আরও বলেছে,ট্রাইব্যুনালের দেয়া আগের মৃত্যুদণ্ডাদেশগুলোর ক্ষেত্রেও ন্যায় বিচার নিয়ে একাধিক প্রসিদ্ধ আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষক তাদের গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছিল।

সংস্থাটির এশিয়া অঞ্চলের পরিচালক ব্র্যাড এডামস বলেন,হিউম্যান রাইটস ওয়াচ যে কোনও পরিস্থিতিতে সব ধরনের মৃত্যুদণ্ডের বিরোধিতা করে।এটি একটি নিষ্ঠুর শাস্তি।যার মাধ্যমে দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তির মধ্যে কোনও অনুশোচনা বা পরিবর্তন সৃষ্টি হয় না।

এদিকে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের দেয়া মৃত্যুদণ্ডাদেশের চূড়ান্ত রায়ের বিরুদ্ধে গত ৫ মে নিজামীর রিভিউ আবেদন খারিজ হওয়ার পর একমাত্র বিকল্প ‘রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষা’ চাওয়া। এর সময়সীমা শেষ হলেই যেকোন সময় রায় কার্যকর করা হতে পারে।

তবে নিজামীর আইনজীবীরা বলছেন, নিজামী ক্ষমা প্রার্থনা করবেন না। ফলে ফাঁসি কার্যকর করতে আর কোনও আইনি বাঁধা নেই।