ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:৫৫ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

এনায়েত উল্লাহ
এনায়েত উল্লাহ ওরফে মঞ্জু

যুদ্ধাপরাধ মামলা: আসামি এনায়েত মারা গেছেন

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলার আসামি নেত্রকোনার জামায়াত নেতা এনায়েত উল্লাহ ওরফে মঞ্জু (৭০) মারা গেছেন।

বুধবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার এই জামায়াত নেতাকে ২০১৬ সালের ২ অক্টোবর নেত্রকোনার আটপাড়া থানার কুলশ্রীর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরের দিন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গত ৩ জানুয়ারি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে চিকিৎসার জন্য তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এর আগে একই বছরের ৮ সেপ্টেম্বর এনায়েত উল্লাহ ও তার বড় ভাই হেদায়েত উল্লাহ ওরফে আঞ্জু (৮০) এবং সোহরাব ফকির ওরফে সোহরাব আলী ওরফে ছোরাপ আলীর (৮৮) বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা।

তিনজনের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের ছয়টি অভিযোগ আনা হয়।

ট্রাইব্যুনাল সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ৫ মে এ তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে তদন্ত সংস্থা। এক বছর চার মাস পর তদন্ত শেষ হয়। আসামিদের তিনজনই একাত্তরে জামায়াতের কর্মী ছিলেন। এদের মধ্যে আঞ্জু ও মঞ্জু এখনো জামায়াতের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।