Press "Enter" to skip to content

মোদিই দুর্নীতির হোতা, দেশের লজ্জা : মমতা

চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না বলে পশ্চিমবঙ্গ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে হুশিয়ারি দিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ওই মামলায় মমতা ‘ভয় পাচ্ছেন’ কেন, তা নিয়েও প্রশ্ন তুললেন তিনি। শুক্রবার বিকালে জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ির সভায় মমতাকে আক্রমণ করে এসব কথা বলেন মোদি।

প্রায় সঙ্গে সঙ্গে জবাব দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। মোদিকে কটাক্ষ করে মমতা বললেন, ‘মাস্টার অব করাপশন… মাস্টার অব অ্যারোগেন্স… মোদি ইজ শেম অব দ্য কান্ট্রি…’ অর্থ করলে দাঁড়ায় মোদিই দুর্নীতির হোতা, দেশের লজ্জা।’

কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআইর জিজ্ঞাসাবাদ চেষ্টার বিরুদ্ধে রোববার কলকাতায় ধরনায় বসেন মমতা। তিন দিন পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তা তুলে নেন তিনি।

এদিন সকালে ভারতের সুপ্রিমকোর্ট নির্দেশ দেন, পুলিশ কমিশনারকে সিবিআই জেরা করতে পারবে, তবে সেই জেরা হবে নিরপেক্ষ জায়গায়- দিল্লি বা কলকাতা নয়, মেঘালয়ের রাজধানী শিলংয়ে। আগামীকাল শনিবার থেকে জেরা শুরু করবে।

সেদিকেই ইঙ্গিত করে মোদি বলেন, ‘বাংলায় এমন এক মুখ্যমন্ত্রী যারা গরিবের টাকা লুট করেছে। বাংলার মানুষ জানতে চায়, চিটফান্ডের তদন্তে আপনার এত ভয় কেন, যাদের বিরুদ্ধে তদন্তে গাফিলতির অভিযোগ তাদের পাশে কেন দাঁড়াচ্ছেন? চৌকিদার এদের ছাড়বে না।’

কয়েক ঘণ্টা পরই এর জবাব দেন মমতা। বলেন, ‘মোদিই সব থেকে দুর্নীতিগ্রস্ত প্রধানমন্ত্রী। যে নিজে দুর্নীতিতে সিদ্ধহস্ত, অন্যের দিকে আঙুল তোলা সাজে না তার।’

শেয়ার অপশন:
Don`t copy text!