Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৫৩ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২২শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

মুহিত-এরশাদ ও তোফায়েল
মুহিত-এরশাদ ও তোফায়েল

‘মুহিতের আগে ৫ বছরের বড় এরশাদের পদত্যাগ চাইলে ভাল হতো’

প্রস্তাবিত বাজেট আলোচনায় অংশ নিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের পদত্যাগ দাবি করায় জাতীয় পার্টির দুই সংসদ সদস্যকে তুলোধুনো করেছেন আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেন, বয়সে এরশাদ তো অর্থমন্ত্রীর চাইতে ৫ বছরের বড়। বাবলু যদি এরশাদকে পদত্যাগ করতে বলতেন তাহলে ভাল শোনা যেত।

একই সঙ্গে মন্ত্রিসভার বৈঠকে বাজেট অনুমোদনের সময় কোন কথা না বলে সংসদে বাজেটের সমালোচনা করা মন্ত্রীদের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, মন্ত্রীরা তো এই বাজেটের অংশ। তবে কি এই বাজেট শুধুই নেগেটিভ, পজেটিভ (ভাল) কিছু নেই? আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের পর সংসদে যে বাজেটটি পাস হবে সেটি হবে এ দেশের শ্রেষ্ঠ বাজেট’।

তিনি এসময় আরও বলেন, সহায়ক সরকার নয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ওই নির্বাচনে বিএনপি না আসলে অনেকেই বলছেন তাদের অবস্থা হবে খুবই খারাপ।

বুধবার জাতীয় সংসদে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তোফায়েল আহমেদ এসব কথা বলেন।

আলোচনায় অংশ নিয়ে জাতীয় পার্টির দুই এমপির সমালোচনা করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, কাজী ফিরোজ রশিদ ও জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু যেভাবে অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কথা বলেছেন এটা তাদের কাছে কাম্য নয়।

তাদের উদ্দেশে তোফায়েল আহমেদ বলেন, আপনারা অর্থমন্ত্রীর বয়স নিয়ে কথা বলেছেন। আপনার দলের চেয়ারম্যান এরশাদ তো অর্থমন্ত্রীর চাইতে ৫ বছরের বড়। তিনি (বাবলু) যদি বলতেন আপনি (এরশাদ) পদত্যাগ করেন তাহলে ভাল শোনা যেত। তবে কি এই বাজেট শুধুই নেগেটিভ, পজেটিভ (ভাল) কিছু নেই? সমালোচনা করুন, কিন্তু অবশ্যই গঠনমূলক হতে হবে।

এদিন আলোচনায় আরও অংশ নেন- সাবেক খাদ্যমন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক, সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, মীর মোসতাক আহমেদ রবি, ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, বজলুল হক হারুন, একাব্বর হোসেন, ওয়াশিকা আয়শা খান, মমতাজ বেগম, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও বিমানমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য ডা. রুস্তম আলী ফরাজী, ঊষাতন তালুকদার এবং বিরোধী দল জাতীয় পার্টির ফখরুল ইমাম।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এটা প্রস্তাবিত বাজেট, চূড়ান্ত নয়। বাজেটের কিছু অংশের সমালোচনা থাকতে পারে। যেমন আবগারি শুল্ক ও ভ্যাট। এটি নিয়ে আমাদের অভিভাবক প্রধানমন্ত্রী সমাপনী বক্তব্য রাখবেন। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বাজেটে যদি কোনো সমস্যা থাকে তাহলে আমরা দেখবো। আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, প্রধানমন্ত্রীর প্রস্তাবের পর যে বাজেট পাস হবে সেটি হবে দেশের শ্রেষ্ঠ বাজেট।