ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:৪৬ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

হত্যাকাণ্ডটি যেখানে হয়েছে সেই এলাকায় পুলিশ একজন সন্দেহভাজনের হাতে আকা ছবি প্রচার করছে।

‘মুসলিমরা উগ্রপন্থার নিশানা হয়ে উঠেছে’

নিউইয়র্কের একটি মসজিদের সামনে ওই মসজিদেরই ইমাম সহ দুজন গুলিতে নিহত হবার পর শহরের মেয়র বলেছেন ইদানীং যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিমরা সকল উগ্রপন্থার নিশানা হয়ে উঠেছে।

শনিবার নিউইয়র্কের একটি বাঙ্গালী অধ্যুষিত এলাকায় ইমাম আলাউদ্দিন আকুঞ্জি এবং তার সঙ্গে থাকা তার সহযোগী তারা মিঞাকে জোহরের নামাজ পড়ে ফেরার সময় গুলি করে হত্যা করা হয়।

মেয়র ব্লাজিও বলেছেন, “যদিও আমরা এখনো জানি না মৌলানা আকুঞ্জি ও তারা মিঞাকে হত্যার উদ্দেশ্য কি। কিন্তু আমরা এটা জানি যে এখানকার মুসলিম সম্প্রদায় প্রতিনিয়ত ধর্মান্ধতা ও উগ্রতার নিশানা”

তিনি আরো বলছেন, “যে বিভাজন তৈরি হয়েছে সেটা ঘোচাতে কাজ করা খুবই জরুরী। এই বিভাজন আমাদের দেশের জন্য ঝুঁকি”

নিউ ইয়র্ক ডেইলি নিউজে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কেউ একজন পেছন থেকে এগিয়ে এসে অতর্কিত ঐ দুই ব্যক্তিকে গুলি করে পালিয়ে যায়।

ওদিকে নিউইয়র্কে বসবাসকারী মুসলিমরা এই হত্যাকাণ্ডের পর এক ধরনের ভয়ের মধ্যে আছেন বলে সংবাদদাতারা বলছেন।

নিহত দুজনেরই পরিচিত নিজামুদ্দিন নামে একজন ট্যাক্সি চালক বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, “আমি এরকম উৎকণ্ঠা আগে কখনো বোধ করি নি।”

যে এলাকা ঘটনাটি ঘটেছে সেই কুইন্সের এক বাসিন্দা মনির চৌধুরী বলেছেন, “আমি আমার পাড়াকে ভালোবাসি কিন্তু ইদানীং আমার বেশ ভয় লাগে।”

গত বছর নিউইয়র্ক টাইমস এক খবরে বলেছিল মার্কিন মুসলিমদের প্রতি অপরাধের সংখ্যা বাড়ছে। বিবিসি