শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৫৬ ঢাকা, শুক্রবার  ১৪ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

সাবিরা সুলতানা মুন্নী
সাবিরা সুলতানা মুন্নী

মুন্নীর দণ্ড স্থগিতের আদেশ স্থগিত

আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনে যশোর-২ আসনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী সাবিরা সুলতানা মুন্নীকে বিচারিক আদালতের দেয়া সাজা ও দণ্ড স্থগিত করে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছে আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত।

আদেশে বিচারক বলেন, যেহেতু এর আগে আমরা এ বিষয়ে একটি সিদ্ধান্ত দিয়েছি, এটা আমরা আগামীকাল পর্যন্ত স্থগিত করে ফুল কোর্টে পাঠিয়ে দিচ্ছি।

রোববার সকালে প্রধান বিচারপতি নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হবে।

চেম্বার আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন, অ্যাটর্নি জেনালে মাহবুবে আলম, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা ও অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মমতাজ উদ্দিন ফকির।

দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান ও এবিএম বায়েজিদ।

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা চেয়ারম্যান সাবিরা সুলতানার পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী, আমিনুল ইসলাম, জয়নুল আবেদীন ও মাহববুউদ্দিন খোকন।

হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে রাষ্ট্রপক্ষ ও দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর আদালত এ আদেশ দেন।

মুন্নীর বিরুদ্ধে বিচারিক আদালতের দেয়া দণ্ড ও সাজা স্থগিত করে বৃহস্পতিবার বিচারপতি মোহাম্মদ রইচ উদ্দিনের একক বেঞ্চ আদেশ দেন।

ওইদিন মুন্নীর আইনজীবী আমিনুল ইসলাম জানান, বিচারিক আদালতের দেয়া মুন্নীর দণ্ড স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে যারা নির্বাচনে অংশ নিতে চান তারা হাইকোর্টে দণ্ড বা সাজা স্থগিত করে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।

এছাড়া আদালত বলেছেন, আপিল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত কাউকে চূড়ান্তভাবে দণ্ডিত বলা যাবে না। প্রতিক্রিয়ায় অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, সংবিধান অনুসারে দুই বছরের বেশি সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে অযোগ্য।

অর্থাৎ দণ্ডিত ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবে না। তাই হাইকোর্টের একক বেঞ্চের এ আদেশের বিরুদ্ধে আমরা আপিল করব। এ আদেশ সংবিধান পরিপন্থী।