ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:৫৭ ঢাকা, সোমবার  ২১শে মে ২০১৮ ইং

মোজাম্মল হক
মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মল হক, ফাইল ফটো

মুক্তিযোদ্ধারা প্রতি মাসেই ভাতা পাবেন

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, শিগগিরই প্রতি মাসে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা প্রদানের ব্যবস্থা করা হবে।

তিনি আজ সংসদে সরকারি দলের সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘দেশের গেজেটভুক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বর্তমানে ৩ মাস পর পর ভাতা প্রদান করা হলেও মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানী ভাতা বিতরণ নীতিমালা-২০১৩ মোতাবেক প্রতি মাসে ভাতা প্রদান মর্মে উল্লেখ রয়েছে। নীতিমালা অনুসারে ভাতা প্রদানের জন্য সকল জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।’

এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় রাজাকার বাহিনীর সদস্যরা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বেতন-ভাতা উত্তোলন করতেন। এর একটি তালিকা মন্ত্রণালয়ে সংরক্ষিত ছিল। ২০০১ সালের পর বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে এ তালিকা সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

তিনি বলেন, রাজাকার, আলবদর ও শান্তি কমিটির সদস্যদের একটি তালিকা প্রণয়নের উদ্যোগ অব্যাহত রয়েছে।

সরকারি দলের সদস্য নুরজাহান বেগমের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সংরক্ষণে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয় ১১টি প্রকল্প গ্রহণ ও তা বাস্তবায়ন করছে। তিনি বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বর্তমান গণতান্ত্রিক এবং মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সরকার ব্যাতিত প্রতিটি সরকারই স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃত করেছে।

সরকারি দলের সদস্য আমিনা আহমেদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংগ্রাম, আত্মত্যাগের মহিমা নতুন প্রজন্মের মাঝে তুলে ধরার জন্য ঢাকার আগারগাঁওয়ে ১০২ কোটি টাকা ব্যায়ে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হয়েছে।

সরকারি দলের অপর সদস্য রহিম উল্লাহর এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনাক্ত করা ও প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা নির্ণয়ের জন্য যাচাই বাছাই করার লক্ষ্যে ৪৫৯টি উপজেলা কমিটি, পার্বত্য জেলামূহে ৩টি জেলা কমিটি, ৮টি মহানগর কমিটিসহ ৪৭০টি যাচাই বাছাই কমিটি গঠন করা হয়েছে।