ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:১৯ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

রুহুল কবির রিজভী
রুহুল কবির রিজভী, ফাইল ফটো

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে যত বিতর্ক হবে, ততই সত্য বেরিয়ে আসবে: রিজভী

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে যত বিতর্ক হবে, ততই সত্য বেরিয়ে আসবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের উদ্দেশ্যে রিজভী আহমেদ বলেন, এ বিতর্কের মধ্যদিয়েই আওয়ামী লীগের তখনকার ভূমিকা বের হয়ে আসবে।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের ভূমিকা নিয়ে আওয়ামী লীগের অনুশোচনা আছে। এ কারণেই তারা বিএনপি নেতাদের নামে মামলা দিচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনের পুরো বক্তব্যজুড়ে সরকারের তথ্যমন্ত্রী ও জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনুর সমালোচনা করেন বিএনপির এই নেতা।

রিজভী বলেন, ‘গবু চন্দ্র মন্ত্রীরা বিরোধী দল ও নেতানেত্রী সম্পর্কে দিনরাত হুমকি আর অশ্রাব্য কথা বলছেন। এর মধ্যে এগিয়ে আছেন ভোটারবিহীন সরকারের তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তার বক্তব্য-বিবৃতি পড়লে মনে হয়, বিএনপি ও দলটির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক কথা বলতে পারার ওপর তার মন্ত্রিত্ব থাকা না থাকা নির্ভর করছে।’

এ সময় তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ও বিচারপতি খায়রুল হককে ‘বিচারবহির্ভূত হত্যার ইন্ধনদাতা’ হিসেবে মানুষের আদালতে বিচারের জন্য ফাইনাল লিস্টেই রেখেছেন রিজভী।

তিনি আরো বলেন, ‘আজকে যে জঙ্গীবাদের উৎপত্তি তা হাসানুল হক ইনুদের ৭২-৭৫ এর সহিংস কর্মকাণ্ড থেকেই শুরু হয়। লাদেনের আবির্ভাবের আগে জঙ্গীবাদের যে স্বরূপ দেশবাসীসহ বিশ্ববাসী প্রথম দেখেছে, তা হলো-৭০ দশকের প্রথমার্ধে হাসানুল হক ইনুদের গণবাহিনীর সহিংস তাণ্ডব।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন আলম, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, গণশিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লা মিয়া, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক আসাদুল করিম শাহীন প্রমুখ।