ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:২০ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মিলেছে নিখোঁজ বিমানের ধ্বংসাবশেষ

নিখোঁজ এয়ার এশিয়ার বিমানটি সাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে এবং এর ধ্বংসাবশেষ ইন্দোনেশিয়ার পূর্ব বেলিতাং দ্বীপ সংলগ্ন সমুদ্রে দেখতে পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে ‘বাঙ্কা পোস’ নামে ইন্দোনেশীয় একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যম।

সংবাদমাধ্যটি জানায়, ওই স্থানে বিমানের ধ্বংসাবশেষ দেখতে পাওয়া গেছে বলে তাদের সূত্র জানিয়েছে। তবে  ওই ধ্বংসাবশেষই হারিয়ে যাওয়া কিউজেড ৮৫০১ নম্বর ফ্লাইটের কিনা, সে সম্পর্কে এখনও তারা নিশ্চিত নন।

বেলিতাং প্রদেশের এইচএএস হানানজোদ্দিন তানজুংপান্ডান বিমানবন্দরের কর্মকর্তা সুপর্নো জানান, যেখানে ধ্বংসাবশেষ পাওয়া গেছে সে জায়গাটি এখনও সুর্নিদিষ্টভাবে চিহিৃত হয়নি।

সংবাদমাধ্যমটি আরও জানায়, ইন্দোনিশিয়ার জাতীয় অনুসন্ধান ও উদ্ধারকারী সংস্থা (বাসারনাস) ইতোমধ্যে বাঙ্কা বেলিতাং দ্বীপ থেকে পূর্ব বেলিতাংয়ের দিকে রওনা দিয়েছে।

বাসারনাস কমান্ডার জনি  সুপারিয়াদি জানান, আমরা সাগর পথে শিগগিরই পূর্ব বেলিতাংয়ে যাচ্ছি।

এর আগে ইন্দোনেশিয়ার বিমান পরিবহন বিভাগের পরিচালক জোকো মুরজাতমোজো রোববার সকালে বলেছিলেন, বিমানটির সর্বশেষ অবস্থান ছিলো বেলিতাং দ্বীপের তানজুং পানডান ও কালিমানতান দ্বীপের মধ্যবর্তী স্থানে। স্থানটি তানুজং পানডান থেকে একশ’ নটিক্যাল মাইল দক্ষিণ পূর্বে অবস্থিত।

রোববার স্থানীয় সময় সকালে সোয়া ৬ টার দিকে এয়ার এশিয়ার যাত্রীবাহী  বিমানটি নিখোঁজ হয়। ২৬২ জন আরোহী নিয়ে ইন্দোনেশিয়ার সুরাভায়া শহরের জুয়ান্দা বিমানবন্দর থেকে সিঙ্গাপুর যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয় কিউজেড-৮৫০১ফ্লাইটটি। বিমানটিতে  যাত্রী ও ক্রু মিলে ১৬২ জন আরোহী ছিল।