ঘুষ লেনদেনের মামলায় সাময়িক বরখাস্ত পুলিশের ডিআইজি মিজানুর রহমান ও দুদকের বরখাস্ত পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দিচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আজ কমিশনের এক সভায় এই অভিযোগপত্র অনুমোদন দেওয়া হয়।

দুদক সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখত বলেন, তদন্তে ওই দুজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। তাই কমিশন অভিযোগপত্র অনুমোদন দিয়েছে। শিগগিরই বিচারিক আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হবে।

৯ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এ মামলার প্রতিবেদন জমা দেওয়ার সময় ঠিক করে রেখেছে আদালত।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায় থেকে বাঁচতে ডিআইজি মিজানুর অসৎ উদ্দেশ্যে ৪০ লাখ টাকা ঘুষ দেন খন্দকার এনামুল বাছিরকে। আর মামলা থেকে বাঁচিয়ে দিতে সেই টাকা নেন এনামুল বাছির।

গত বছরের ১৬ জুলাই মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন সংস্থাটির পরিচালক মোহাম্মদ ফানাফিল্লাহ। মানি লন্ডারিং আইনে সংস্থার ঢাকা-১ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে মামলাটি করা হয়।