Press "Enter" to skip to content

মা, ভাই ও খালাকে কুপিয়ে হত্যা করলো মাদকাসক্ত কিশোর

পাবনার বেড়া উপজেলায় নেশার টাকা না পেয়ে মাসহ পরিবারের তিন সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করেছে তুহিন (১৫) নামে এক মাদকাসক্ত কিশোর। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের সোনাপদ্মা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের সোনাপদ্মা গ্রামের মিঠু কানার বড় ছেলে তুহিন (১৫) দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত। সে স্থানীয় ভারেঙ্গা একাডেমির দশম শ্রেণির ছাত্র। মাস ছয়েক আগে একই স্কুলের সহপাঠী রুণার সঙ্গে তার বিয়ে হয়। নেশার টাকার জন্য প্রায়ই পরিবারের সদস্যদের ওপর অত্যাচার করতো। গত মঙ্গলবার রাতে নেশা করার জন্য তার মা বুলবুলি বেগমের কাছে টাকা চায়। বুলবুলি বেগম টাকা দিতে অস্বীকার করলে মাংস কাটার চাপাতি দিয়ে তাকে আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান।

এ সময় তুহিনের খালা মরিয়ম বেগম (৪৫) ও ছোট ভাই তুষার (১০) এগিয়ে এলে তাদেরও এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক। সকালে তুহিনের স্ত্রী রুণা এলাকাবাসীর কাছে এ হত্যার কথা স্বীকার করে।

পুলিশের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা ও পাবনা ২ আসনের সংসদ সদস্য আজিজুল হক আরজু ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

শেয়ার অপশন:
Don`t copy text!