Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:৫৯ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

মালয়েশিয়ার প্রতি বিনিয়োগ বৃদ্ধির আহ্বান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুই বন্ধুপ্রতীম দেশে পারস্পরিক স্বার্থে বাংলাদেশে বিনিয়োগ বৃদ্ধির জন্য মালয়েশিয়া সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। আজ সন্ধ্যায় মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও শিল্প বিষয়ক মন্ত্রী মোস্তফা মোহাম্মেদ গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি এ আহ্বান জানান। সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব একেএম শামীম চৌধুরী এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের অবহিত করেন।
তিনি বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য ও বিনিয়োগসহ বৈঠকে পারস্পরিক স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাঁরা আলোচনা করেছেন। প্রেস সচিব বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে মালয়েশিয়ার বিনিয়োগের পরিমাণ হচ্ছে ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যে বাণিজ্যিক ব্যবধান কমিয়ে আনতে তাঁর সরকার একটি বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যে বাণিজ্যিক ব্যবধান হ্রাস পেলে বাংলাদেশের জনগণ লাভবান হবে।
মোস্তফা মোহাম্মেদ মালয়েশিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশেীদের প্রশংসা করে বলেন, তারা কঠোর পরিশ্রমী, আন্তরিক এবং আইন মেনে চলে। তিনি বলেন, দুই ভ্রাতৃপ্রতীম দেশের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিল্পখাতে সম্পর্ক আরো জোরদারে ব্যাপক সুযোগ রয়েছে।
বিদ্যমান ব্যাপক বাণিজ্যিক ব্যবধানের বিষয়ে তিনি বলেন, দুই দেশের ব্যবসায়ী ফোরাম কার্যকরভাবে এগিয়ে আসলে এটি ব্যাপকভাবে হ্রাস পাবে। মালয়েশিয়ার মন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বে বিভিন্ন খাতে বাংলাদেশের সাফল্যের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সরকারের বাস্তবমুখী পদক্ষেপের কারণে গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৬ শতাংশের ওপরে বজায় রেখেছে।
মোস্তফা মোহাম্মেদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা জানান। এসময় অন্যান্যের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, মুখ্য সচিব আবদুস সোবহান সিকদার এবং বাংলাদেশে মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার নরলিন ওথমান উপস্থিত ছিলেন।
পরে ওয়ার্ল্ড ইন্টেলেকচ্যুয়াল প্রোপার্টি অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউআইপিও) মহাপরিচালক ফ্রান্সিস গ্যারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাতকালে গ্যারি বলেন, নিজস্ব উন্নয়নের জন্য বাংলাদেশের উচিত ইন্টেলেকচ্যুয়াল প্রোপার্টি অধিকার সমুন্নত রাখা। তিনি সরকারের প্রশংসা করে বলেন, সকল উন্নয়ন খাতে বাংলাদেশ চমৎকার কাজ করছে।
ডব্লিউআইপিও’র মহাপরিচালক পদে পুনঃনির্বাচিত হওয়ার জন্য গ্যারিকে অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার নেতৃত্বকে সমর্থন দিয়ে বাংলাদেশ সন্তুষ্ট। দেশের সার্বিক উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার বর্তমান মেয়াদের এক বছর সম্প্রতি সম্পন্ন করেছে। তিনি আরো বলেন, ‘আমরা আমাদের লক্ষ্য অর্জনে সঠিক পথে রয়েছি।’