ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:২১ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মামলার জট কমাতে সরকার কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে : আইনমন্ত্রী

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, দ্রুত মামলা জট কমাতে সরকার কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই এর ফলাফল পাওয়া যাবে।
তিনি আজ সংসদে স্বতন্ত্র সদস্য মো. ছলিম উদ্দীন তরফদারের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
সরকারি দলের সদস্য সুবিদ আলী ভুইয়ার এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, বিকল্প পদ্ধতিতে বিরোধ নিষ্পত্তির মাধ্যমে মামলা জট কমানোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। প্রতি জেলায় কেস ম্যানেজমেন্ট কমিটি গঠনের মাধ্যমে দ্রুত মামলা নিষ্পত্তি পদক্ষেপ হাতে নেয়া হয়েছে। এছাড়া, অধিকসংখ্যক বিচারক নিয়োগ করে সরকার আদালতের সংখ্যা বৃদ্ধি করেছে।
সরকারি দলের এম আবদুল লতিফের অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মামলার দীর্ঘসূত্রিতা নিরসনকল্পে সুপ্রিম কোর্টের আওতা ইতোমধ্যে বাড়ানো হয়েছে। গত ৯ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট বিভাগে ১০ জন অতিরিক্ত বিচারক নিয়োগ করেছে।
তরিকত ফেডারেশনের সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারী এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, জামায়াতের নিবন্ধন বাতিলের মামলাটি বর্তমানে আপিল বিভাগে বিচারাধীন রয়েছে। মামলা দ্রুত শুনানির জন্য বাদীপক্ষকে আপিল বিভাগে আবেদনের জন্য তিনি পরামর্শ দেন।
আনিসুল হক বলেন, জামায়াত নিষিদ্ধ করার ব্যাপারে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল আইন সংশোধনী বর্তমানে মন্ত্রিপরিষদে রয়েছে। সেখানে পাস হলে তা সংসদে উত্থাপন করা হবে।
স্বতন্ত্র সদস্য হাজী মো. সেলিমের অপর এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঢাকা মেট্রোপলিটন আদালতে কিছু বিচারকের পদ শূন্য রয়েছে। আগামী ২ সপ্তাহের মধ্যে এসব পদ পূরণ করা হবে।