ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৪৬ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান
নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, ফাইল ফটো

মানুষ হত্যা করে তারা কোন্ ইসলাম কায়েম করতে চায় জানি না

নৌ পরিবহন মন্ত্রী ও আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার আন্দোলনের আহ্বায়ক শাজাহান খান বলেছেন, ইসলামের নাম নিয়ে যারা নিরীহ মানুষ হত্যা করে, তারা কোন্ ইসলাম কায়েম করতে চায় আমরা তা জানিনা।

তিনি বলেন, ইসলাম নামধারী জঙ্গিরা ইহুদীদের দ্বারা সৃষ্ট। তারা ইসলামের বিরুদ্ধে জঙ্গিদের কাজে লাগাচ্ছে। ইহুদীরা চির জনম ধরে ইসলামের শত্রু।

মন্ত্রী আজ মতিঝিল মসজিদ ওয়াকফ ষ্টেট মসজিদে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবিরোধী ওলেমা-মাশায়েক ও মুসল্লীদের এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভেকেট মোজাম্মেল হক।

সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন শোলাকিয়া ঈদগাহ জামাতের ইমাম আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসউদ, মহানগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মইনুল ইসলাম ময়না ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা।
এতে সভাপতিত্ব করেন মসজিদ কমিটির সভাপতি কাজী মাসুদ আহম্ম্দে।

নৌ পরিবহন মন্ত্রী বলেন, আজ জঙ্গি ও ইসলামকে মুখোমুখি দাঁড় করানো হচ্ছে। ইসলামে জঙ্গিদের কোন ঠাঁই নেই। ইসলামকে রক্ষা করা আমাদের ঈমানী দায়িত্ব ও কর্তব্য।

তিনি বলেন, ১ লাখ ৮ হাজার মুফতি জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ফতোয়া দিয়েছেন। এ কারণে জঙ্গিরা মাওলানা মাসউদকে হত্যা করতে চেয়েছে।

নৌ পরিবহন মন্ত্রী বলেন, যারা কোরআনের নির্দেশনা মানে না তার কি ধরনের মুসলমান? জঙ্গিরা বলে থাকে, মৃত্যুর পর তারা নাকি বেহেশতে যাবে। খুনীরা বেহেশতে যেতে পারে না।

তিনি বলেন, মানুষ তো দূরের কথা ইসলামে কোন প্রাণী হত্যা মহাপাপ। পবিত্র রমজান মাসে ও ঈদের দিন ইসলামের নাম নিয়ে জঙ্গিরা মানুষ হত্যা করেছে।

নৌ পরিবহন মন্ত্রী বলেন, কথায় কথায় তারা মানুষকে মুরদাত বলা হচ্ছে।। যাকে মুরদাত বলা হচ্ছে তিনি জাকাত দেন, নামাজ পড়েন, হজ করেছেন। অথচ এরা তাদের মুরদাত বানিয়ে দিলেন।

তিনি বলেন, এজিদের বংশধরেরা ইসলামকে শেষ করতে চাইছে। তারা ইসলামের নামে শোষণ করছে। এরাই একদিন বলেছিল পাকিস্তান না থাকলে ইসলাম থাকবে না। তারা ক্ষমতায় যাবার জন্য ইসলামকে ব্যবহার করেছে।