ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:৩৩ ঢাকা, সোমবার  ২৩শে অক্টোবর ২০১৭ ইং

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
বিশিষ্ট নাগরিক ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সামনে বক্তব্যে দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

মানুষ মানুষের জন্য প্রমাণ করেছি : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের বিষয়ে বলেছেন, মানুষ মানুষের জন্য, আমরা সেটা প্রমাণ করেছি। বিপন্ন মানবতাকে আশ্রয় দিয়েছে বাংলাদেশ। এর মধ্য দিয়ে বিশ্ব উদার বাংলাদেশকেই দেখল।

শনিবার সকালে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্য সফর শেষে দেশে ফিরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের ভিভিআইপি লাউঞ্জে বিশিষ্ট নাগরিক ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সামনে দেয়া এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রীকে বিশিষ্ট নাগরিক, সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরা ছিল আমার লক্ষ্য। সেটা আমরা পেরেছি। যারা বাংলাদেশকে দারিদ্র্য ও দুর্যোগের দেশ বলে জানতো, তারা আজ ভিন্ন বাংলাদেশকে দেখছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ আজ বিপন্ন মানবতাকে আশ্রয় দিচ্ছে। মানুষ মানুষের জন্য, আমরা সেটা প্রমাণ করেছি।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা প্রথমে দ্বিধাগ্রস্ত থাকলেও রোহিঙ্গাদের নির্যাতনের মাত্রা দেখে তাদের জন্য বাংলাদেশের দরজা খুলে দিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মিয়ানমার এখন আন্তর্জাতিক চাপে আলোচনায় এসেছে। আমরা আশা করছি, রোহিঙ্গা সংকটের সমাধান করতে পারবো।

তিনি বলেন, আমরা রোহিঙ্গাদের বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে তাদের আইডি কার্ড করে দিচ্ছি। তাদের জন্য থাকার ব্যবস্থা, স্যানিটেশন, খাদ্যের ব্যবস্থা করেছি।

সীমান্তে মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর তৎপরতা বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিবেশিদের আচরণ দেখে মনে হচ্ছিল যে, তারা যুদ্ধ চায়। কিন্তু আমরা সতর্ক ছিলাম। কোনো ধরনের উস্কানিতে আমরা পা দেইনি।

তার সরকারের সফলতার কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, একটানা দু’বার দেশে ক্ষমতায় থাকার কারণে দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা হয়েছে। যারা অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করেছে তাদের কারণে ৭৫ এর পর দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি হয়। আমরা দেশের মানুষের ভাগ্য গড়তে এসেছি। নিজেদের ভাগ্য নয়, আমাদের চাওয়া পাওয়া নেই।

জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে ১৬ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্র যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন।

পাশাপাশি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সভায় যোগদান ছাড়াও বেশ কয়েকটি দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।

সাধারণ অধিবেশনে যোগদান শেষে ২২ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্ক থেকে ভার্জিনিয়া যান তিনি। বুধবার ভার্জিনিয়া থেকে লন্ডন পৌঁছেন প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকে আজ দেশে ফিরলেন শেখ হাসিনা।