Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:৪২ ঢাকা, রবিবার  ১৮ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

মানুষ বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলনে সাড়া দেবে না

শিল্পমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু এমপি বলেছেন, দেশের মানুষ বিএনপি-জামায়াতের আন্দোলন-কর্মসূচিতে কোনো সাড়া দেবে না। কেননা, আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা ও ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ড আন্দোলনের আদর্শ হতে পারে না।
তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত গত পাঁচ জানুয়ারীর জাতীয় নির্বাচন বানচালের নামে মানুষ হত্যা করে যেভাবে সহিংসতা করেছিল তা মনে করে দেশের মানুষ এখনো আঁতকে উঠে।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, সেই বিভীষিকাময় সময়ের কথা মানুষ ভুলে যায়নি এবং তাই তাদের আন্দোলন কর্মসূচির সাথে দেশের মানুষের কোন সম্পৃক্ততা নেই।
তিনি আজ বিকেলে রাজধানীর বিসিআইসি মিলনায়তনে শিল্প মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে ‘ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সুখী বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ডিজিটাল প্রযুক্তির সার্বজনীন ব্যবহার এবং মুক্তিযুদ্ধ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
শিল্প সচিব মোশাররফ হোসেন ভূইয়ার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. ফরহাদ উদ্দিন, বাংলাদেশ ক্যামিকেল ইন্ড্রাস্ট্রিজ কর্পোরেশন (বিসিআইসি)’র পরিচালক মো. আবুল কাশেম ও শিল্প মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব সুষেণ চন্দ্র দাস।
আমু বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে দেশ যখন উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে এবং বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হচ্ছে তখন বিএনপি বিএনপির ধূর্ততায় দেশের মানুষ সাড়া দেবে না।
তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে দেশের আপামর জনগণ যেমন ঐক্যবদ্ধ হয়েছিল তেমনি ভাবে বর্তমানেও তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ রয়েছে।
আমু বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার মধ্যদিয়ে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিকে রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিক ভাবে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছিল।
তিনি বলেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান দেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের বিরোধীতাকারীদের মন্ত্রী বানিয়েছিলেন এবং ১৩ হাজার যুদ্ধাপরাধীকে জেল থেকে মুক্তি দিয়েছিলেন।
আমু বলেন, বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াও জিয়াউর রহমানের পদাঙ্ক অনুস্বরণ করে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির গাড়ীতে জাতীয় পতাকা তুলে দিয়েছেন এবং তাদের প্রতিষ্ঠিত করতে সকল প্রকার সহযোগিতা দান করেছেন।
তিনি বলেন, এতে প্রমাণ হয়- বিএনপি দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না এবং এখনও তারা পাকিস্তানের সাথে শিথিল কনফেডারেশনে গঠনের নীতিতে অটল রয়েছে।
মোশাররফ হোসেন ভূইয়া বলেন, বর্তমান সরকার জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সব সময় সোচ্চার। এশিয়ার অনেক দেশের চেয়ে বিভিন্ন উন্নয়ন সূচকে দেশ এগিয়ে রয়েছে।
তিনি বলেন, দেশের এ উন্নয়ন বর্তমান সরকারে সঠিক নীতিমালা প্রনয়ণ ও তা সঠিক ভাবে বাস্তবায়নের জন্যই সম্ভব হয়েছে।