ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:১২ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মানুষ পুড়িয়ে মারার সর্বনাশা পথ পরিহার করুন

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত হরতাল-অবরোধের নামে মানুষ পুড়িয়ে মারার সর্বনাশা পথ পরিহার করে গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে ফিরে আসার জন্য বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার প্রতি আহবান জানিয়েছেন।
তিনি আজ সকালে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে নৌকা সমর্থক গোষ্ঠী’র উদ্যোগে আয়োজিত চলমান রাজনীতি বিষয়ক এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
সংগঠনের উপদেষ্টা ডা. মো. এমদাদুল হক সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, সাম্যবাদী দলের কেন্দ্রীয় নেতা হারুন চৌধুরী ও কৃষক লীগ নেতা আব্দুল হাই কানু প্রমুখ।
সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, গণতন্ত্র এবং নাশকতা একসাথে চলতে পারে না। বেগম খালেদা জিয়াকে নাশকতার সর্বনাশা পথ পরিহার করে গণতান্ত্রিক রাজনীতির ধারায় ফিরে আসার ও হরতাল- অবরোধ কর্মসূচী প্রত্যাহার করারও আহবান জানান তিনি।
আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সুরঞ্জিত বলেন, বেগম জিয়া এসএসসি পরীক্ষার মধ্যে হরতাল-অবরোধ কর্মসূচী আহবান করে ছাত্রসমাজের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছেন।
এজন্য বিএনপি-জামায়াতকে ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে উল্লেখ করে সুরঞ্জিত বলেন, ‘ আমরা ছাত্রসমাজের পক্ষে আছি। ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হবে। এজন্য সরকার ও আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সকল সহযোগিতা প্রদান করা হবে।’
তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার ২০ দল ছাত্রসমাজকে প্রতিপক্ষ করে আন্দোলনের নামে নাশকতা শুরু করেছে। তারা ছাত্র-ছাত্রীদের পরীক্ষা ঠেকানোর ষড়যন্ত্র করেছে। তাদের ষড়যন্ত্র সফল হবে না।
সংলাপ প্রসঙ্গে সুরঞ্জিত বলেন, পেট্রলবোমা মেরে মানুষ হত্যা করা আমাদের জাতীয় ঐতিহ্যের পরিপন্থী। গণতন্ত্রে আলোচনা অপরিহার্য। আমরাও আলোচনার বিপক্ষে নই। তবে পেট্রলবোমা মেরে সংলাপে বসাবেন- তা হতে পারে না।
সুরঞ্জিত আরো বলেন, যারা আন্দোলনের নামে নাশকতা করে মানুষ পুড়িয়ে মারে -তাদের পরাজয় অবশ্যম্ভাবী। জনগণের বিজয় সুনিশ্চিত।