বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী
বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ফাইল ফটো

মানুষ ক্ষুব্ধ না হয়ে কি গালিবের গজল গাইবে?

বর্তমান সরকার বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে নির্বাচনের মাঠ থেকে সরাতে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি প্রশ্ন করেন, এমতাবস্থায় কোনো বিবেকবান মানুষ ক্ষুব্ধ না হয়ে কি গালিবের গজল গাইবে?

বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, গতকাল প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তৃতাকালে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের কঠোর সমালোচনা করে বলেছেন-‘তাদের (ঐক্যফ্রন্ট) দুর্ব্যবহার থেকে কেহই রেহাই পাচ্ছে না।

আওয়ামী লীগের নেতাদের ওপর হামলা করছে, সহিংসতা চালাচ্ছে। তারা নির্বাচন কমিশনে গিয়ে ঝগড়া করছে এবং পুলিশের বিরুদ্ধে বাজে ভাষা ব্যবহার করছে।’ এভাবে অনেক কথা বলেছেন।

তিনি অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য বাংলাদেশের মানুষের সঙ্গে সেরা প্রহসন। যেখানে শত শত বিএনপি, ঐক্যফ্রন্ট ও জোটের নেতাকর্মীদের বাড়িঘর আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়া হচ্ছে। আওয়ামী সন্ত্রাসী ও কিছুসংখ্যক রাষ্ট্রীয় বাহিনীর তাণ্ডবে বাংলাদেশের প্রতিটি জনপদ এখন আতঙ্কের নগরীতে পরিণত হয়েছে।

দেশব্যাপী শত শত সহিংস ঘটনা ঘটানো হচ্ছে। সেটি হয় পুলিশের উপস্থিতিতে আওয়ামী সশস্ত্র ক্যাডারদের দ্বারা অথবা পুলিশ বা গোয়েন্দা পুলিশ নিজেরাই সন্ত্রাসী কায়দায় ঐক্যফ্রন্টের গণসংযোগে হামলা করছে, বলেন তিনি।

রিজভীর দাবি, বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টকে নির্বাচনের মাঠ থেকে সরাতে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে সরকার।

তিনি প্রশ্ন করেন, এমতাবস্থায় কোনো বিবেকবান মানুষ ক্ষুব্ধ না হয়ে কি গালিবের গজল গাইবে?