ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:৫৩ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

‘মাকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা’

চট্টগ্রামে মাকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যার পর এক ছেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে।

পরে সুমিত চৌধুরী (২১) নামের ওই ছেলেকে আহত অবস্থায় আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার দুপুর ১টার দিকে নগরীর গোসাইলডাঙ্গা এলাকার সরকার টাওয়ার নামে একটি ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের নাম কুমকুম চৌধুরী (৫৫)। আত্মহত্যার চেষ্টাকারী সুমিত এখন পুলিশ হেফাজতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

স্থানীয়রা জানায়, এবছর এসএসসি পরীক্ষায় অকৃতকার্য হওয়ার পর সুমিত ‘মানসিক সমস্যায়’ ভুগছিল।

পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (বন্দর) জয়নুল আবেদীন গণমাধ্যমকে জানান, সুমিত যে দা দিয়ে তার মাকে হত্যা করেছে ওই দা দিয়েই আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। বিষয়টি সুমিত স্বীকার করেছে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, পুরো বাসা রক্তাক্ত হয়ে আছে। নিহতের গলায় চারটি কোপের আঘাত দেখা যায়। তাছাড়া শরীরের অন্যান্য স্থানেও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

ঘটনার পর ওই বাড়িতে র‌্যাব, পুলিশ এবং সিআইডি’র সদস্যরা ছুটে যান। তারা হত্যাকাণ্ডের বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেন।

প্রতিবেশীরা জানান, দুই সন্তানকে নিয়ে ওই বাসায় থাকতেন কুমকুম। তার স্বামী ঢাকায় থাকেন।

ঘটনার সময় কুমকুম এবং সুমিত ছাড়া বাসায় আর কেউ ছিল না। দুপুরে সুমিতের বড় ভাই বাসায় ঢুকে দেখতে পায় সুমিত তার মাকে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা চালাচ্ছে।