ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:৪৯ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মজুত গ্যাস ২০৩১ সাল পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে, তারপর ?

গ্যাস উত্তোলনের বর্তমান হার অব্যাহত থাকলে মজুত গ্যাস ২০৩১ সাল পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।
রোববার জাতীয় সংসদে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।
সকাল সাড়ে ১০টায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের অধিবেশন শুরু হলে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি একথা বলেন।
আ.লীগ দলীয় সংসদ সদস্য আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, দেশে প্রাথমিকভাবে উত্তোলনযোগ্য গ্যাস ছিল ২৭ দশমিক ১২ টিসিএফ। এর মধ্যে ২০১৫ সালের মে পর্যন্ত ১২ দশমিক ৯৬ টিসিএফ গ্যাস উত্তোলন করা হয়েছে। ১৪ দশমিক ১৬ টিসিএফ গ্যাস মজুত আছে। চলতি অর্থ বছরের ১১ মাসে ৮১৫ দশমিক ৯৮ বিসিএস (বিলিয়ন কিউবিক ফুট) উত্তোলন করা হয়েছে। গ্যাস উত্তোলনের এই হার অব্যাহত থাকলে মজুত গ্যাস ২০৩১ সাল পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে।একসঙ্গে গ্যাসে চাপ কমে যাওয়ার কারণে গ্যাস ফিল্ডগুলোর উৎপাদন ক্ষমতা কমে যাবে।
জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী জানান, দেশে বর্তমানে ভাড়ায় নির্মিত ৩১টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র রয়েছে। এগুলোর উৎপাদন ক্ষমতা দুই হাজার ১৩৭ মেগাওয়াট।
১৪টি রেন্টাল ও কুইক বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন ক্ষমতা ৭৪৮ দশমিক ৫০ মেগাওয়াট এবং ১৭টি কুইক রেন্টাল কেন্দ্রের উৎপাদন ক্ষমতা এক হাজার ৩৮৮ দশমিক ৫০ মেগাওয়াট।