ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:০৮ ঢাকা, রবিবার  ২১শে অক্টোবর ২০১৮ ইং

ভূমিকম্প
রাস্তায় নেমে যায় সাধারণ মানুষ

ভূমিকম্পের পর নিউজিল্যান্ডে সুনামি

নিউজিল্যান্ডে ৭.৮ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর সুনামি আঘাত হেনেছে। ভূমিকম্পের দুই ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে দেশটির সাউথ আইল্যান্ডে সুনামি পৌঁছায়।

রোববার নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় সময় মধ্যরাতে কিছুক্ষণ পর ক্রাইস্টচার্চ শহর থেকে ৯৫ কিলোমিটার দূরে ভূমিকম্প আঘাত হানে।

প্রথমে ৭.৪ মাত্রার ভূমিকম্পের কথা জানিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের জিওলজিকাল সার্ভে। তখন সুনামি সতর্কতাও জারি করা হয়নি।

এর প্রায় দুই ঘণ্টা পর সাউথ আইল্যান্ডের উত্তর-পূর্ব উপকূলে সুনামির ঢেউ আছড়ে পড়ে। এরমধ্যে ক্রিসচার্চের ১৮১ কিলোমিটার উত্তরে কায়কোরায় একটি ঢেউয়ের উচ্চতা ছিল ৬ ফুট ৫ ইঞ্চির মতো।

তাৎক্ষণিক প্রাণহানি কিংবা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। লোকজনকে উপকূল ছেড়ে মূল ভূমিতে এবং উঁচু জায়গায় অবস্থান নিতে বলা হয়েছে। ইতিমধ্যে কয়েক হাজার লোককে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

রাজধানী ওয়েলিংটনেও ভূকম্পন অনুভূত হয়। এসময় সাইরেন বেজে ওঠে এবং আতংকিত লোকজন ঘরবাড়ি ছেড়ে রাস্তায় নেমে আসে। অনেককে তখন কাঁদতে দেখা যায়।

এর আগে ২০১১ ক্রিসচার্চে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হানলে অন্তত ১৮৫ জন নিহত হয়। এখনও সেই ভূমিকম্পের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারেনি শহরটি। ভূমিকম্পে শহরের কেন্দ্রস্থল বিধ্বস্ত হয়।

প্রশান্ত মহাসাগরে ঘনঘন ভূমিকম্প এবং আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের জন্য ভয়ংকর ‘রিং অব ফায়ার’র ওপর রয়েছে নিউজিল্যান্ড।