ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:৩২ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ভূমধ্যসাগরে ৪২০০ অভিবাসী উদ্ধার, ১৭ টি লাশ পাওয়া গেছে

ভূমধ্যসাগর পাড়ি দেয়ার চেষ্টাকালে শুক্রবার চার হাজার ২০০ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় বেশ কয়েকটি নৌযানে ১৭ জনের লাশ পাওয়া গেছে। ইতালির কোস্টগার্ড এ উদ্ধার কাজে সমন্বয় করেছে।
শনিবার বার্তা সংস্থা এএফপির এক খবরে বলা হয়েছে, ২২টি নৌযান থেকে সাহায্যবার্তা পায় ইতালির কোস্টগার্ড। লিবিয়ার উপকূল থেকে বেশিরভাগ বার্তা আসে। তবে ইতালির দক্ষিণাঞ্চলীয় উপকূল থেকেও সহায়তার ডাক আসে।
গত ২৪ ঘণ্টায় যে সংখ্যক অভিবাসী উদ্ধার করা হয়েছে তা সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে অন্যতম সর্বোচ্চ। তবে এটা রেকর্ড সংখ্যক কিনা তা কোস্টগার্ড নিশ্চিত করতে পারেনি। এর আগে গত ১২ এপ্রিল তিন হাজার ৭৯১ অভিবাসী এবং ২ মে তিন হাজার ৬৯০ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়।
ইতালির নৌবাহিনী টুইটারে জানায়, তিনটি নৌযান থেকে ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তাদের মৃত্যুর কারণ তাৎক্ষনিকভাবে জানাতে পারেনি দেশটির নৌবাহিনী। ওই নৌযানগুলো থেকে ৩ শতাধিক অভিবাসীকেও জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।
ইতালি, জার্মানি ও আয়ারল্যান্ড নৌবাহিনীর জাহাজের সহায়তায় ইতালির কোস্টগার্ড শুক্রবারের ওই উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করে।
এর আগে গত বৃহস্পতিবার একই ধরণের আন্তর্জাতিক সমুদ্রে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা হয়েছিল। সে সময় সিসিলি উপকূল থেকে ৭ শতাধিক অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছিল। তারা ছয়টি নৌকায় লিবিয়া থেকে যাত্রা করেছিল।
চলতি বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত ৪০ হাজার ৪শ’র বেশি অভিবাসী ইতালি এসে পৌঁছেছে। সংঘাত ও দারিদ্র্যের জন্য সিরিয়া ও ইরিত্রিয়ার মত দেশগুলো থেকে তাদের অনেকে পালিয়ে এসেছে।
আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএ)’র তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছর ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে এক হাজার ৭৭০ জন মারা গেছে। তবে এর মধ্যে শুক্রবারের সংখ্যা অন্তর্ভূক্ত নয়।