ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:৫৫ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ভিন্ন মতাবলম্বীদের শক্ত হাতে দমন করছে বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ

নির্বাচনের বর্ষপূতিকে সামনে রেখে ভিন্ন মতাবলম্বীদের শক্ত হাতে দমন করছে বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ। এ কথা বলেছে অনলাইন ডয়েচে ভেলে। ‘বাংলাদেশ অথরিটিজ ক্লাম্প ডাউন অন ডিসেন্ট অ্যাহেড অব ইলেকশন অ্যানিভারসারি’ শীর্ষক ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রধান বিরোধী দলীয় নেত্রীকে তার অফিসে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। সোমবার বিতর্কিত নির্বাচনের প্রথম বর্ষপূর্তি। সে সময়টার মুখোমুখি বাংলাদেশ। বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ বলছে, রাজনৈতিক পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে যে উত্তেজনা বিরাজ করছে তা নিরসনের চেষ্টা করছে তারা। ঢাকা পুলিশের এক মুখপাত্র মাসুদুর রহমান বলেছেন, সহিংসতার আশঙ্কায় সব রাজনৈতিক দলের সভা সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী শিমুল বিশ্বাস বলেছেন, খালেদা জিয়াকে তার অফিসে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। পুলিশ ওই এলাকা ঘেরাও করে রেখেছে ব্যারিকেড সৃষ্টি করে। শনিবার মধ্যরাতে দলের এক অসুস্থ নেতাকে দেখতে যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ তাকে বাইরে বেরুতে দেয় নি। তবে খালেদাকে জোর করে আটকে রাখার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পুলিশ ইন্সপেক্টর ফিরোজ কবির। তিনি বলেছেন, আমরা তাকে আটক করিনি। শুধু তার নিরাপত্তা বাড়িয়েছি। তিনি অফিস থেকে যাচ্ছেন না।