Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১:৪৫ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সাইক্লোন সেন্টার উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বরগুনা জেলার আমতলী উপজেলায় নবনির্মিত ৭টি স্কুল কাম সাইক্লোন সেন্টার উদ্বোধন করেছেন।
সৌদি আরবের কিং আব্দুল্লাহ জনকল্যাণমূলক দাতব্য ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহযোগিতায় ‘ফায়েল খায়ের’ কর্মসূচির আওতায় ২০০৭ সালের সিডর সাইক্লোন আক্রান্ত এলাকার জনগণের জন্য এই সেন্টারগুলো নির্মিত হয়েছে।
গণভবন থেকে বরগুনার আমতলীতে সরাসরি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী এই সাইক্লোন সেন্টারগুলো আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন। এসময় গণভবনে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, ত্রাণ ও দুর্যোগ পুনর্বাসন মন্ত্রী মোফাজ্জ্বল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম উপস্থিত ছিলেন।
বরগুনার আমতলীতে এ উপলক্ষ্যে জেলা প্রশাসন আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে এ সময় উপস্থিত ছিলেন-সৌদি আরবের কিং আব্দুল্লাহ জনকল্যাণমূলক দাতব্য ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সৌদি প্রিন্স তুর্কি বিন আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজ আল সউদ, ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের  প্রেসিডেন্ট ড. আহমেদ মোহাম্মদ আল মাদানি, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম.এ.মান্নান, অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সিনিয়র সচিব মেজবাহ উদ্দিন প্রমুখ।
প্রধানমন্ত্রী বরগুনাবাসীর পক্ষ থেকে সাইক্লোন সেন্টারের সঙ্গে সম্পৃক্ত সকল মহলকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, আমি এখান থেকে নির্বাচন করেছি। সংসদ সদস্যও ছিলাম। তাই বরগুনাবাসীর পক্ষ থেকে আমি সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন জানাচ্ছি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সৌদি আরবের প্রয়াত বাদশাহ আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে সহযোগিতা এবং অনুষ্ঠান স্থলে উপস্থিত হবার জন্য সৌদি প্রিন্স তুর্কি বিন আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজ আল সউদ এবং ইসলামিক ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট ড.আহমেদ মোহাম্মদ আল মাদানিকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
শেখ হাসিনা বলেন, বরগুনাবাসীকে আমার অভিনন্দন, তারা ঘুর্ণিঝড়, জলোচ্ছাসসহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে সাহসিকতার সঙ্গে অত্যন্ত কষ্ট করে বেঁচে আছেন। এই সাইক্লোন সেন্টারগুলো একদিকে যেমন শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার কাজে লাগবে তেমনি ঘুর্ণিঝড়-জলোচ্ছাসে মানুষের আশ্রয়স্থল হিসেবে ব্যবহৃত হবে।
তিনি আশা প্রকাশ করেন, স্কুল কাম সাইক্লোন সেন্টারগুলো জনগণের কল্যাণে ব্যবহৃত হবে।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সৌদি আরবের কিং আব্দুল্লাহ জনকল্যাণমূলক দাতব্য ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহযোগিতায় ‘ফায়েল খায়ের’ কর্মসূচির আওতায় ২০০৭ সালের সিডর দুর্গত দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৩টি জেলার জন্য ১৭৩টি স্কুল কাম সাইক্লোন সেন্টার নির্মান করা হচ্ছে। এ পর্যন্ত ৬১টির নির্মান সম্পন্ন হয়েছে। আজকের ৭টি সহ ৪১টি হস্তান্তর করা হয়েছে এবং হস্তান্তর যোগ্য অবস্থায় ৭টি রয়েছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সৌদি আরবের প্রয়াত বাদশাহ আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজ সিডর সাইক্লোনে ক্ষতিগ্রস্থ বাংলাদেশের উপকূলীয় জনগণের জন্য ১৩০ মিলিয়ন ডলার মিলিয়ন ডলার দান করেছেন।