“চার বছরের ছেলের পেটে ভ্রূণ”

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে চার বছরের একটি বাচ্চা ছেলের পেটে একটি ভ্রূণ পাওয়া গেছে।

আংশিকভাবে পরিণত হাত, পা, নখ আর মাথাসহ ঐ অপরিণত ভ্রূণটি অপারেশন করে সরিয়ে দেয়া হয়েছে।

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বিনপুর এলাকার ঐ শিশুটি পেটের ব্যথা নিয়ে চিকিৎসকের কাছে এসেছিল।

ওই শিশুটির চিকিৎসক ডা. প্রসূন ঘোষ জানান, “ব্যথার সঙ্গে পেটটা কিছুটা ফোলা-ও ছিল। প্রথমে ভেবেছিলাম টিউমার রয়েছে। কিন্তু আল্ট্রাসোনোগ্রাফি করে দেখা গেল যে ওর পেটে আরেকটি অপরিণত ভ্রূণ রয়েছে।”

৫-৬ লক্ষ শিশুর মধ্যে হয়তো একজনের পেটে এরকম ভ্রূণ পাওয়া যায়, চিকিৎসাবিজ্ঞানে যার নাম foetus in foetu বা ভ্রূণের মধ্যে ভ্রূণ।

ডা. ঘোষ ব্যাখ্যা করেন, “গর্ভধারণের সময়ে দেখা যায় যে একটি ভ্রূণ অন্য ভ্রূণটির ভেতরে চলে যায়। মায়ের শরীর থেকে পুষ্টি নিয়ে যখন একটি ভ্রূণ পরিণত হতে থাকে, তার শরীরে থাকা ছোট ভ্রূণটিও কিছুটা পরিণত হয়।“

“আবার জন্মের পরে সদ্যজাতের শরীর থেকে পুষ্টি নিয়েও ছোট ভ্রূণটি বাড়তে থাকে। এটা সেরকমই একটা অতি বিরল ঘটনা।” বিবিসি।

সর্বশেষ সংশোধিত: , মাধ্যম: