ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১১:০৬ ঢাকা, শুক্রবার  ১৭ই আগস্ট ২০১৮ ইং

ভারতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ৮৫ জন নিহত

ভারতের মধ্যপ্রদেশে শনিবার সকালে একটি রেস্তোরাঁয় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অন্তত ৮৫ নিহত হয়েছে।
মধ্যপ্রদেশের ঝাবুয়া জেলার পেতলাওয়াদ শহরের একটি রেস্তোরাঁয় ওই বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের ব্যাপকতায় আশপাশের বেশ কয়েকটি বাড়িও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
নিহতের সংখ্যা প্রাথমিকভাবে ২০ জন বলে উল্লেখ করা হলেও উদ্ধারকর্মীরা ধ্বংসস্তূপ থেকে কয়েক ডজন মৃতদেহ উদ্ধারের পর হিতের সংখ্যা অনেক বেড়ে যায়।
ঝাবুয়া পুলিশ কন্ট্রোল রুমের ইন্সপেক্টর ইন চার্জ এম এল গোন্দ এএফপিকে বলেন, এর আগে বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ১০৪ জন নিহত হয়েছে বলে ধারণা করা হলেও এখন আমাদের নিজস্ব দাপ্তরিক হিসাব বলছে, ৮৫ জন নিহত হয়েছে।
ঝাবুয়া জেলার প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা অরুণ কুমার শর্মা বলেন, স্থানীয় একটি হাসপাতাল থেকে টেলিফোনে এএফপিকে বলেন, বিষ্ফোরণে ১০০ জন আহত হয়েছে, যাদের মধ্যে ২০ জনের অবস্থা আশংকাজনক।
স্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তা জানান, পাশের একটি বাড়িতে খনির কাজে জমা করে রাখা দাহ্য পদার্থ জেলাটিন স্টিকস থাকায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ক্ষয়ক্ষতি মারাত্মক রূপ নেয়।
মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন।
এছাড়া নিহতের প্রত্যেকের পরিবারকে দুই লাখ রুপি এবং আহত প্রত্যেককে ৫০ হাজার রুপি করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।
পেতলাওয়াদের উপবিভাগীয় পুলিশ কর্মকর্তা (এসডিওপি) এ আর খান বলেন, ওই ভবনে রাজেন্দ্র তাতওয়া নামে এক ব্যক্তি বিস্ফোরক মজুদ করে রেখেছিলেন। তার এ-সংক্রান্ত লাইসেন্স রয়েছে।
জেলার সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা সীমা আলাভা জানান, স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ সময় সেখানে অনেক অফিস কর্মী ও স্কুল শিক্ষার্থীরা নাশতা করছিল।
এর আগে অবশ্য পেতলাওয়াদের পুলিশ কর্মকর্তা এ আর খান ২০ জনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছিলেন।
টেলিভিশনের ভিডিও ফুটেজে অনেক লোক ও উদ্ধার কর্মীকে ভেঙে পড়া ভবনের ধ্বংসস্তূপ সরাতে দেখা যায়। পুলিশ এলাকাটি ঘিরে রেখেছে।
জেলা পুলিশ নিয়ন্ত্রণ কক্ষের অপর কর্মকর্তা অনুরাগ মিশ্র বলেন, রেস্তোরাঁটি একটি ব্যস্ত বাসট্যান্ডের পাশে অবস্থিত হওয়ায় হতাহতের সংখ্যা এতো বেশি হয়েছে।