ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:৫০ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ভারতে অগ্নি-৫ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল উৎক্ষেপণ

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

ভারত সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি পারমাণবিক অস্ত্রবহনে সক্ষম অগ্নি-৫ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল উৎক্ষেপণ করেছে। শনিবার সকাল ৮টায় নাগাদ উড়িষ্যা উপকূলের হুইলার দ্বীপের ইন্টিগ্রেটেড টেস্ট রেঞ্জ (আইটিআর) থেকে ক্ষেপণাস্ত্রটি উৎক্ষেপণ করা হয়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণের সঙ্গে যুক্ত বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন।
আইটিআর কর্মকর্তা এমভিকেভি প্রসাদ জানিয়েছেন, পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম এ ক্ষেপণাস্ত্র ৫ হাজার কি. মি. দূরের লক্ষ্যবস্তুতে নির্ভুল আঘাত করতে পারবে।
টুইটারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ‘অগ্নি-৫ ক্ষেপণাস্ত্রটির সফল উৎক্ষেপণ দেশ ও সেনাবাহিনীর অস্ত্রভান্ডারকে আরও মজবুত করবে। এই প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত সকল বিজ্ঞানীকে আমি আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি।’ টুইটারে বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিও।
আইটিআর থেকে এর আগে ২০১২ সালের ১৯ এপ্রিল প্রথম ও ২০১৩ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর আরো একটি ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালানো হয়েছিল।
আইটিআর কর্মকর্তা এমভিকেভি প্রসাদ বলেন, শুধু শত্রুকে আঘাত হানাই নয়, সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরী অগ্নি-৫ এর আরও বেশ কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তিনি জানান, এর মধ্যে অত্যাধুনিক বিভিন্ন প্রযুক্তি একত্রিত করা হয়েছে, যার সাহয্যে নির্ভুলভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করতে পারবে ক্ষেপনাস্ত্রটি। এটি ১৭ মিটার লম্বা, ২ মিটার চওড়া। এর ওজন আনুমানিক ৫০ টন। এটি প্রায় এক টন ওজনের পরমাণু অস্ত্র বহন করতে সক্ষম।
দূরপাল্লার এই ক্ষেপণাস্ত্রটিকে সহজে বহনযোগ্য হওয়ায় এটি দেশের যে কোনও প্রান্তে বয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে। নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছ থেকে উৎক্ষেপণ করা হলে এটি চীনের উত্তর প্রান্তের যে কোনও শহরে আঘাত আনতে সক্ষম।
ভারতের কাছে এর থেকেও কম পাল্লার অগ্নি-সিরিজের বিভিন্ন ক্ষেপণাস্ত্র রয়েছে। আরও কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর অগ্নি-৫ সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দেয়া হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।