ফরিদপুর-বরিশাল মহাসড়কের ভাঙ্গা বিশ্বরোড সংলগ্ন এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুইজন নিহত ও কমপক্ষে ৫০ জন আহত হয়েছেন। প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপি উদ্ধার অভিযান চালিয়ে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন- নগরকান্দা থানার রামনগর গ্রামের ধলা ফকিরের ছেলে বাসের চালক রওশন ফকির (৪৫) ও রাজবাড়ীর পাচুরিয়া গ্রামের লক্ষণ কুন্ডর স্ত্রী বাসের মহিলা যাত্রী মিরা কুন্ড (৬০)।

আহতদের মধ্যে যাদের নাম পাওয়া যায় তারা হলেন- তৌহিদ আালম (২৮), আল আমিন (৩৫), শাহআলম (৩২), মুন্নি (২২), সিয়াম (১০), সালমা বেগম (৪০), আসমা বেগম (৪১), জুই (৩০), রোজিনা (২৪), মনির হোসেন (৩৫), অজ্ঞাতনামা (৫৫), নিপু (২১), আব্দুল্লাহ (৩২), ফারিহা (৩), শম্ভু (৩৫), শ্রেয় (১০), নিত্য (৪৮), মনিরা (৩৫), মামুন (২০), মৌসুমী (২২), মমতাজ (৪০), লিমা (১৯), লিয়াকত আলী (৪০), অজ্ঞাত (৩৫), শাহিদা (৪০), মাশরাফি (১৩), নাসিমা (৪০), আমিন (৩৫), মিলন (৪০), হিল্লোল (৪০), এসআই পারভীন (৩৮) ও ভক্তি রানি (৪০)।

তাদের ভাঙ্গা হাসপাতালে এবং গুরুতর আহতদের জরুরী ভিত্তিতে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডাক্তার খালেদুর রহমান মিয়া জানায়, রেফার্ডকৃত রোগীদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক রয়েছে।

দুর্ঘটনার পর সড়কের দুই প্রান্তে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে যায়। উদ্ধার অভিযানে উপজেলা প্রশাসন, ভাঙ্গা হাইওয়ে পুলিশ, থানা পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীসহ স্থানীয় জনতা অংশ নেয়। খবর পেয়ে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মুকতাদিরুল আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।