ব্রেকিং নিউজ

ভোর ৫:১০ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ব্লগার বাদাবিকে বেত্রাঘাতের নিন্দা জানানোর আহ্বান

ব্রিটিশ সংবাদপত্র ইন্ডিপেন্ডেন্টে মঙ্গলবার প্রকাশিত এক খেলাচিঠিতে বিশ্বের ১৮ জন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী সৌদি আরবের শিক্ষাবিদদের প্রতি দেশটির ব্লগার রায়েফ বাদাবিকে বেত্রাঘাতের ঘটনার নিন্দা জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন।
‘ইসলাম অবমাননার অপরাধে ১০ বছরের কারাদ- এবং সপ্তাহে ৫০টি করে মোট ১ হাজার বেত্রাঘাতের আদেশ দেয়া হয়। এর অংশ হিসেবে এ মাসের প্রথম দিকে তাকে ৫০টি বেত্রাঘাত করা হয়।
খোলাচিঠিতে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জন কোয়েৎজিসহ রসায়ন পদার্থ, শরীরবিদ্যা বা চিকিৎসাশাস্ত্রে নোবেল বিজয়ীরা স্বাক্ষর করেন।
এতে সৌদি শিক্ষাবিদদের প্রতি ভিন্নমত প্রকাশের স্বাধীনতার পক্ষে যুক্তি-তর্ক উপস্থাপনের আহ্বান জানানো হয়।
সৌদি আরবের কিং আবদুল্লাহ ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি (কেএইউএসটি) সভাপতিকে সম্বোধন করে লেখা এ খোলাচিঠিতে বিশ্ববিদ্যালয়টি আন্তর্জাতিক শিক্ষাঙ্গনে একঘরে হয়ে পড়ার ঝুঁকির বিষয়টির দিকে ইঙ্গিত করা হয়।
খোলাচিটিতে বলা হয়, ‘আমরা এই উদ্বেগ থেকে লিখি যে সৌদি আরবের সমাজে চিন্তা ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার ওপর যে কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করা হচ্ছে তার কারণে সৃষ্ট হতাশায় আন্তর্জাতিক সহযোগিতার বন্ধন বিচ্ছিন্ন হয়ে যেতে পারে।’
এতে আরো বলা হয়, ‘আমাদের এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই যে কেএইউএসটি’র সদস্যরাও এই উদ্বেগের অংশীদার এবং তারা ওয়াকিবহাল রয়েছেন যে, উদাহরণস্বরূপ মুক্ত আলোচনার জন্য একটি ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা রায়েফ বাদাবিকে কি নিষ্ঠুর সাজা দেয়া হয়েছে, যা সারা বিশ্বের মানুষকে মর্মাহত করেছে।’
চিঠিতে বলা হয়, ‘আমাদের আত্মবিশ্বাস রয়েছে যে, কেএইউএসটির প্রভাবশালী সদস্যদের ভিন্নমত প্রকাশের পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন করতে শুনব। এছাড়া কোনো উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান টিকে থাকতে পারে না।’
এতে আরো বলা হয়, ফ্রান্সের ব্যঙ্গ সাপ্তাহিক শার্লি হেবদোর স্টাফদের নৃশংস হত্যাকা-ের পর মতপ্রকাশের স্বাধীনতার সমর্থনে এক মিছিলে ফ্রান্সে সৌদি রাষ্ট্রদূতের অংশ গ্রহণের পর ‘নতুন চিন্তার সময় এখনই।’
বাদাবিকে ২০১২ সালে জেলে নেয়া হয়। তিনি সৌদি আরবের সৌদি লিবারেল নেটওয়ার্কের সহ-প্রতিষ্ঠাতা।
আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা তাকে ‘বিবেকবন্দি ’ হিসেবে বর্ণনা করেছে।