শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ২:৪২ ঢাকা, শনিবার  ১৫ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

ব্রিটেনে কট্টর ইসলামের ‘বিষ’ নষ্টে নুতন কৌশল

ব্রিটেনে, তার ভাষায়, ইসলামি উগ্রবাদের বিষ নষ্টে প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামরন নতুন এক জাতীয় কৌশল ঘোষণা করেছেন।
বার্মিংহাম শহরে এক ভাষণে, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মূল চারটি লক্ষ্য হাসিলের কথা বলেন —
‘বিকৃত’ উগ্রপন্থা মোকাবেলা, কট্টরপন্থায় দীক্ষিত হওয়া রোধ করা, উদারপন্থি মুসলিমদের ক্ষমতা দেওয়া এবং ব্রিটিশ মুসলিমদের একাংশের মধ্যে আত্মপরিচয়ের সঙ্কট ঘোচানোর চেষ্টা করা।
প্রধানমন্ত্রী ক্যামরন বলেন, ব্রিটেনে জন্মগ্রহণ করলেও অনেক মুসলিম ব্রিটিশ সমাজকে তাদের নিজেদের বলে ভাবতে পারেনা।
তিনি বলেন, মূল সমাজের সাথে “সম্পৃক্ত হওয়ার এই ব্যর্থতা” তিনি ঘোচানোর চেষ্টা করবেন।
এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্কুল থেকে শুরু করে গৃহায়ন সব পর্যায়ে মুসলিমদের বিচ্ছিন্ন হয়ে থাকার প্রবণতা কমানোর চেষ্টা করা হবে।
কিভাবে মুসলিম তরুণ যুবকদের একাংশের মধ্যে কট্টরপন্থা জন্ম নিচ্ছে, তা নিয়ে সমীক্ষা চালানো হবে। কারাগারের মধ্যে এবং অনলাইনে কট্টরপন্থার বিস্তার ঠেকানো হবে।
তিনি বলেন, উদারপন্থী মুসলিমরাও এই কট্টরপন্থাকে ঘৃণা করেন। তাদের উদ্দেশ্য করে মি ক্যামরন বলেন, “এই বিষ নিধনে আমি আপনাদের সাথে কাজ করতে চাই।”
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাদের ছেলেমেয়েরা কোনো কট্টর সংগঠনে যোগ দিতে পারে এ রকম সন্দেহ হলে পাসপোর্ট জব্দ করার ক্ষমতা বাবা-মাকে দেওয়ার উদ্যোগ নেয়া হবে।
টিভিতে কট্টর মতবাদ এবং ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে কিনা, সেদিকে কড়া নজর রাখা হবে।
ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেন, কিছু মানুষের সাংস্কৃতিক স্পর্শকাতরতাকে আঘাত করা হবে “এই ভয়ে চোখ বন্ধ করে রাখা যাবেনা”। বিবিসি।