Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৬:৩৯ ঢাকা, বুধবার  ২১শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

‘ব্রিটেনকে ইইউ থেকে দ্রুত বিদায় হতে তাগিদ’

গণভোটে রায় আসার পর ব্রিটেনকে ২৮ জাতির জোট ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) থেকে দ্রুত বিদায় হওয়ার তাগাদা দিয়েছেন তাদের শীর্ষনেতারা। বের হয়ে আসার প্রক্রিয়া পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী পর্যন্ত রাখার কথা ডেভিড ক্যামেরন জানালেও ইইউ নেতারা আর অপেক্ষা করতে রাজি নন। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

ব্রেক্সিটের পক্ষে রায় আসার পরপরই ইইউ নেতারা ব্রাসেলসে জরুরি বৈঠক করে। সেখানে ইউরোপীয় কাউন্সিল, কমিশন ও পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট- ডোনাল্ড টাস্ক, জেন ক্লদে জাঙ্কার এবং মার্টিন শুলজ ও নেদারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট সভায় উপস্থিত ছিলেন।

তারা বলেন, জোট ছাড়তে ব্রিটেনের দেরি হলে দীর্ঘস্থায়ী অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হবে। এজন্য যত দ্রুত সম্ভব তাদের বিদায় নেয়া উচিত। ইইউ নেতারা জোটে ‘স্থিতিশীলতা ও সংহতি’র আহ্বান জানিয়েছেন। একইসঙ্গে জোটের সংস্কার দাবিও করেছেন।

ইউরোপীয় কমিশনের প্রধান জেন ক্লদে জাঙ্কার জোর দিয়ে বলেছেন, ব্রিটেন চলে গেলেও ইউরোপীয় ইউনিয়নের বাকি ২৭ সদস্য রাষ্ট্র একসঙ্গে পথ চলবে। গত বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে ব্রেক্সিট নিয়ে গণভোট হয়। শুক্রবার এই ভোটের ফলাফলে ৫২ শতাংশ ব্রিটিশ ইইউ থেকে বেরিয়ে আসার পক্ষে মত দেন।

এরপরই পদত্যাগের ঘোষণা দেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন। এ সময় তিনি যুক্তরাজ্যের ইইউ ত্যাগের প্রক্রিয়া শুরু করার বিষয়টি নতুন প্রধানমন্ত্রীর ওপর ছেড়ে দেন। কিন্তু ইইউ নেতারা এ বিষয়ে আলোচনা আগামী সপ্তাহেই শুরু করতে চান। অক্টোবরে নতুন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব নেয়া পর্যন্ত তারা অপেক্ষা করতে রাজি নন।

শুক্রবারের ওই বৈঠকের পর এক বিবৃতিতে ব্রেক্সিটের জন্য দুঃখপ্রকাশ করে ইইউ। পাশাপাশি ব্রিটিশদের সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানানো হয়। এতে বলা হয়, ইইউ ত্যাগের প্রক্রিয়া যত বেদনাদায়কই হোক না কেন,  যুক্তরাজ্যের যত দ্রুত সম্ভব জনগণের সিদ্ধান্ত কার্যকর করা উচিত। কারণ, এক্ষেত্রে কোনো ধরনের বিলম্ব অনিশ্চয়তা বাড়িয়ে তুলবে।