ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১:০৬ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ড. হাছান মাহমুদ
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, ফাইল ফটো

ব্রাসেলস-প্যারিসের সন্ত্রাসী হামলা ও বাংলাদেশে বিদেশি হত্যা একইসূত্রে গাঁথা : ড. হাছান

ব্রাসেলসের সন্ত্রাসী হামলার ঘটনাকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের অংশ হিসেবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সেখানে (ব্রাসেলসে) যে সন্ত্রাসী হামলা এবং কিছুদিন পূর্বে প্যারিসের সন্ত্রাসী হামলা ও আমাদের দেশে বিদেশিদের ওপর হামলা-হত্যার ঘটনা একই সূত্রে গাঁথা।

শুক্রবার সকালে জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ কর্তৃক ব্রাসেলসে সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাছান মাহমুদ এ মন্তব্য করেন। কোন ঘটনাই বিচ্ছিন্ন নয় একটির সঙ্গে অপরটির কোন না কোন যোগসূত্র আছে।

ব্রাসেলসের ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদ বিশ্বব্যাপী তাদের সন্ত্রাসের বিষবাষ্প ছড়িয়ে দিয়েছে। কিন্ত দুঃখজনক হলেও সত্যি আমাদের দেশে এ আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদকে আশ্রয় দিয়েছে বিএনপি-জামায়াত জোট। ক্ষমতার অভিলাষ চরিতার্থ করার জন্য তারা জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছিল। দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য, সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার জন্য বিদেশি হত্যাসহ ব্লগার হত্যাকাণ্ড বিএনপি-জামায়াত জোটের ছত্রছায়ায় হয়েছিল।

যারা রাজনীতির নামে মানুষ হত্যা করে, মানুষ পুড়িয়ে মারে তারা মানবতার শত্রু। এসব সন্ত্রাসী, জঙ্গিগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে জনগণকে রুখে দাঁড়াতে হবে- বক্তব্যে যোগ করেন হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ন্যাটোসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠনের সদর দপ্তর ব্রাসেলসে। আমি মনে করি সন্ত্রাসবাদ দমনে বাংলাদেশের সঙ্গে এসব সংগঠনের ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করা প্রয়োজন।এবং বিএনপিকে যেন এরা সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড থেকে নিবৃত থাকার পরামর্শ দেয় সে জন্য তাদের (সংগঠনগুলো) প্রতি অনুরোধ রইলো।

বক্তব্যের শুরুতে সাবেক এ পরিবেশমন্ত্রী ফরচুন ম্যাগাজিনের বিশ্বের শীর্ষ ৫০ জন নেতৃবৃন্দের মধ্যে দশম স্থানে অবস্থান করে নেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান এবং কুমিল্লার ভিক্টোরিয়া কলেজের ছাত্রী তনু হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে দোষী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় আনার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানান।

সংগঠনটির সভাপতি এম এ জলিলের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম, বলরাম পোদ্দার, শাহ আলম, এম এ করিম প্রমুখ।