Press "Enter" to skip to content

‘ব্যবসার ক্ষেত্রে সামাজিক দায়বদ্ধতা ধারণ করা উচিত’

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, সামাজিক দায়বদ্ধতা ধারণ করে জনবান্ধব ব্যবসা করা উচিত।

তিনি বলেন, এলপিজি’র মূল্য সহনীয় পর্যায়ে রাখার উদ্যোগ অব্যাহত রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্টদের সাথে নিয়ে অল্প সময়ের মধ্যে এলপিজি’র গ্রাহক পর্যায়ে মূল্য নির্ধারণ করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী আজ ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পেট্রোম্যাক্স এলপিজি’র আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এলপিজি সংরক্ষণ করে লাইনের মাধ্যমে এপার্টমেন্টগুলোতে বা কমিউনিটি ভিত্তিতে বাড়িতে বাড়িতে দেয়া যেতে পারে এবং শিল্পে প্রাকৃতিক গ্যাস বা এলএনজি মিশ্রিত প্রাকৃতিক গ্যাস দেয়া হবে।

এলপিজি বাজারজাত করার জন্য এ পর্যন্ত ৫৫টি কোম্পানিকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। তাদের মোট বার্ষিক উৎপাদন ক্ষমতা ২৩ লাখ ৬০ হাজার টন।

অন্যদিকে দেশে এলপিজির বার্ষিক চাহিদা ৩০ লাখ টন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এলপিজি ব্যবহার নিয়ে সচেতনতা বাড়াতে সরকারের পাশাপাশি এলপিজি কোম্পানিগুলোকেও অবদান রাখতে হবে। এছাড়া নিরাপত্তার বিষয়টি অগ্রাধিকার দেয়া উচিত।

অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য ডা. মো. হাবিবে মিল্লাত ও মাহফুজুর রহমান এবং ইয়ুথ গ্রুপের চেয়ারম্যান রেজাকুল হায়দার ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফিরোজ আলম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

Mission News Theme by Compete Themes.