ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:৫৪ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী
রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

শহীদ বুদ্ধিজীবী ‍দিবসে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার সকালে রাজধানীর মিরপুরে বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান তারা।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সকাল ৭টায় মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। রাষ্ট্রপতির পর শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এ সময় বিউগলে বাজানো হয় করুণ সুর। মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য ও তিন বাহিনী প্রধানরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

পরে শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী হিসেবে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এসময় দলের সিনিয়ার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পরে জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এরপর সর্বসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধ খুলে দেয়া হয়। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ছাড়াও সর্বস্তরের মানুষ শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান।

১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী পরিকল্পিতভাবে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, চিকিৎসক, শিল্পী, লেখক, সাংবাদিকসহ বহু খ্যাতিমান বাঙালিকে হত্যা করে। এ হত্যাকাণ্ডে প্রত্যক্ষ সহযোগিতা করে রাজাকার, আলবদর ও আলশামস বাহিনীর সদস্যরা।

পরে শরীরে নিষ্ঠুর নির্যাতনের চিহ্নসহ জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের লাশ পাওয়া যায় মিরপুর ও রায়েরবাজার এলাকায়। মুক্তিযুদ্ধের পরে তা বধ্যভূমি হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠে। পরাজয় নিশ্চিত জেনেই পাকিস্তানি বাহিনী এ পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড ঘটায়, যার উদ্দেশ্য ছিল স্বাধীনতার পর বাংলাদেশের পুনর্গঠন বাধাগ্রস্ত করা।