Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:১৮ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২২শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

বুকে ব্যথা ছাড়াই হার্ট অ্যাটাক

বুকে খামচে ধরা ব্যথা, ঘাম হওয়া—এসব হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ বলে সবাই জানে। আজকাল বুকে প্রচণ্ড ব্যথা হলে কেউ আর দেরি করে না, কেননা সামান্য দেরিতেই হয়ে যেতে পারে সর্বনাশ। কিন্তু কোনো রকম ব্যথা-বেদনা বা উপসর্গ ছাড়াই কি হার্ট অ্যাটাক হতে পারে? হ্যাঁ, হতে পারে। একে বলে নীরব হার্ট অ্যাটাক বা সাইলেন্ট এমআই। গবেষণায় দেখা গেছে, হার্ট অ্যাটাকের ২০ থেকে ৪০ শতাংশই নীরব বা সাইলেন্ট, যার ফলে অনেকে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হন না, হাসপাতালে পৌঁছতে দেরি হয়ে যায়, আর এই রোগীদের জটিলতা তাই বেশি হয়।
আবার সচরাচর যেমন ব্যথা হওয়ার কথা, তা না হয়ে অনেকেরই ভিন্ন ধরনের উপসর্গ দেখা দিতে পারে। যেমন: ব্যথা হতে পারে হাত বা চোয়ালে, কাঁধে, পিঠের ওপর দিকে, গ্যাস্ট্রিকের মতো লক্ষণ দেখা দিতে পারে। হঠাৎ শ্বাসকষ্ট, অস্বাভাবিক ক্লান্তি, রক্তচাপ কমে যাওয়ার মতো লক্ষণ নিয়েও হার্ট অ্যাটাক হতে পারে।
অস্বাভাবিক উপসর্গ বা উপসর্গহীন হার্ট অ্যাটাক হওয়ার ঝুঁকি বেশি কাদের?
* বয়স্ক ব্যক্তি, যাঁরা সব লক্ষণকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করতে অক্ষম
* দীর্ঘদিনের ও অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিসের রোগী
* স্নায়ুজনিত জটিলতা, যেখানে অনুভূতি কমে যায়
* কিছু ওষুধের কারণেও উপসর্গগুলো ঢাকা পড়ে
* যাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি আছে, যেমন: স্থূলতা, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও রক্তে চর্বি বেশি আছে এমন ব্যক্তি, ধূমপায়ী, হার্ট অ্যাটাকের পারিবারিক ইতিহাস আছে এমন মানুষদের সামান্য অস্বস্তি বা ব্যথাকেও অবহেলা না করাই উচিত। নিজে যেমন সাবধান থাকবেন, তেমনি পরিবারের অন্যদেরও উচিত বয়স্ক ব্যক্তিদের যেকোনো লক্ষণকে বিবেচনায় নেওয়া।

জাতীয় হৃদ্রোগ ইনস্টিটিউট হাসপাতাল

সূত্রঃ প্রথমআলো